জার্সি বিক্রিতেও রেকর্ড লিভারপুলের

বিজ্ঞাপন
default-image
>এই মৌসুমে ১৭ লাখ লাল জার্সি বিক্রি করেছে লিভারপুল। তবে সমর্থকদের কাছে বিক্রি করার মতো লাল জার্সি এখন আর হাতে নেই লিভারপুলের

সাত ম্যাচ হাতে রেখে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ জিতেছে লিভারপুল। মাঠে দুর্দান্ত খেলেই ৩০ বছর পর ইংল্যান্ডের শীর্ষ লিগে শিরোপাখরা ঘুচিয়েছে অল রেডরা। ইয়ুর্গেন ক্লপের দল মাঠের বাইরেও খেল দেখাচ্ছে। জার্সি বিক্রির নতুন ক্লাব রেকর্ড গড়েছে লিভারপুল। এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত ১৭ লাখ লাল জার্সি বিক্রি করেছে ক্লাবটি। সংখ্যাটা আর বেশি হতে পারত। হবে কীভাবে, জার্সিই যে আর নেই। লিভারপুল সংকটে পড়েছে জার্সি তৈরি প্রতিষ্ঠান 'নিউ ব্যালান্স' নতুন জার্সি বানিয়ে দিতে অস্বীকৃতি জানানোয়। 


ইয়ুর্গেন ক্লপ জার্মানি থেকে এসে লিভারপুলের হাল ধরার পর থেকেই জার্সি বিক্রিতে জোয়ার এসেছে। এবারের আগে সর্বশেষ দুই মৌসুমেও জার্সি বিক্রির নতুন রেকর্ড গড়েছিল ক্লাবটি। গত দুবারও লিভারপুলের জার্সি বানিয়েছে নিউ ব্যালান্স। সেই নিউ ব্যালান্সকে বাদ দিয়ে নাইকির সঙ্গে নতুন চুক্তি করাতেই খেপেছে প্রতিষ্ঠানটি। নিউ ব্যালান্সের যুক্তি তাদের সঙ্গে লিভারপুলের চুক্তি ছিল এ বছরের ৩১ মে পর্যন্ত। এ কারণে তারা আর জার্সি বানিয়ে দিতে বাধ্য নয়। জার্সি সংকটের পেছনে বড় দায় অবশ্য নাইকির। নাইকির সঙ্গে এ বছরের ১ জুন থেকে পাঁচ বছরের চুক্তি করতে চেয়েছিল লিভারপুল। কিন্তু নাইকি চুক্তি শুরুর তারিখ পিছিয়ে নিয়ে যায় ১ আগস্টে।

লিভারপুলের আশা আগামী মৌসুমে নাইকিকে নিয়ে জার্সি বিক্রির নতুন রেকর্ড গড়বে তারা। বিশ্বজুড়ে নাইকির আউটলেটগুলো বিক্রি বাড়িয়ে দেবে বলেই বিশ্বাস ১৯ বার ইংল্যান্ডের শীর্ষ লিগ জেতা ক্লাবটির। নাইকির সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী জার্সি বিক্রি থেকে হওয়া মোত লাভের ২০ ভাগ পাবে লিভারপুল ক্লাব।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন