বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মেসি-রোনালদো–উত্তর যুগে ফুটবলের সিংহাসন এমবাপ্পে নেবেন বলেই সবাই মনে করেন। শুধু ভবিষ্যৎ কেন, বর্তমানেই তো পিএসজিকে টানছেন এমবাপ্পে। গত মৌসুমেও দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন।

এ মৌসুমেও মেসি-নেইমারকে ছাপিয়ে আলো ছড়াচ্ছেন এমবাপ্পে। গোল করতে ভালোবাসেন বলে তাঁর নামের পাশে ‘স্বার্থপর’ তকমাও লাগিয়ে দেন অনেকে। কিন্তু এমবাপ্পে তো বলছেন অন্য কথা।

কয়েক মৌসুম ধরেই গুঞ্জন চলছে, রিয়াল মাদ্রিদে যাবেন কিংবা যাই যাই করছেন এমবাপ্পে। এমন পরিস্থিতিতে নিন্দুকেরা রটাতেই পারেন, রিয়াল কিংবা অন্য কোনো বড় দলকে লোভাতুর করে তুলতে এমবাপ্পে শুধু নিজের খেলাটাই খেলছেন। দলের কথা আর ভাবছেন না!

default-image

এ কথাকে উসকে দেয় মাঠে এমবাপ্পের দু–একটি ‘মুভ’ও। বক্সে অনেক সময় বল পেলে ভালো জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকা সতীর্থকে পাস না দিয়ে নিজেই গোলের চেষ্টা করেন ফরাসি তারকা।

এমবাপ্পে যেহেতু নিজেও জানেন, স্বার্থপর হওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিপক্ষে। তাই অভিযোগটি খণ্ডনের চেষ্টা করলেন, ‘শেষ পর্যন্ত ভাবতে হয়, ৫০ গোল করে কী লাভ, যদি (দলীয়) কিছু জিততে না পারি।’

বিষয়টি বোঝাতে গিয়ে নিজের গত মৌসুমের উদাহরণ টানলেন পিএসজি তারকা। ২০২০–২১ মৌসুমে ৪৭ ম্যাচে ৪২ গোল করেন এমবাপ্পে কিন্তু তাঁর দল বড় কোনো শিরোপা জিততে পারেনি। না লিগ আঁ, না চ্যাম্পিয়নস লিগ—পিএসজির মাপের ক্লাবের জন্য এটা ব্যর্থতাই।

এমবাপ্পে তাই বলেন, ‘গত বছরটা আমার জন্য ভালোই ছিল। তবে আমি ৪০ গোল করলেও লিগ কিংবা চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা হয়নি। মৌসুমটা ভালো কাটলেও উপভোগ করতে পারিনি। লক্ষ্য তো শিরোপা জয়, এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’

ফরাসি তারকা এই মুহূর্তে বিশ্বসেরাদের একজন। ২০ বছর বয়সের মধ্যে বিশ্বকাপ জিতে ফরাসি ফুটবলের ‘পোস্টার বয়’ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন নিজেকে। এদিকে পিএসজিরও সেরা তারকাদের একজন তিনি। এ কারণে ভালো করার প্রত্যাশাটা সব সময়ই থাকে তাঁকে ঘিরে। এমবাপ্পে জানালেন, তিনি এই প্রত্যাশার চাপ উপভোগ করেন, ‘চ্যালেঞ্জ নিতে চাপের দরকার হয়। সব সময়ই নিজের কাঁধে দায়িত্ব নিতে চেয়েছি।’

মেসি পিএসজিতে যোগ দেওয়ার আগে এমবাপ্পের এই দায়িত্ব পালন নিয়ে খুব কমই প্রশ্ন উঠেছে। কিন্তু এ মৌসুমের আগে আর্জেন্টাইন তারকা ফরাসি ক্লাবে যোগ দেওয়ার পরও এমবাপ্পের মনটা কেমন উড়ু উড়ু! রিয়ালে যাওয়ার গুঞ্জনটা আরও গাঢ় হয়। তবে মেসিকে নিয়ে উচ্ছ্বাসের কথাই জানিয়েছেন পিএসজি তারকা, ‘দারুণ খেলোয়াড়েরা পাশে থাকলে সুবিধা। নেইমার, মেসি, দি রিয়াদের...মতো খেলোয়াড়েরা থাকলে কাজটা সহজ হয়।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন