বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ফয়সালের ব্যাপারে প্রথম আলোকে লেমোস বলেন, ‘অনূর্ধ্ব-২৩ দল থেকে ৬-৭ জন খেলোয়াড় জাতীয় দলে যোগ দেবে। এদের মধ্যে ফাহিমের ওপর আমার নজর আছে। সে অনেক উন্নতি করেছে। তার খেলায় খুশি।’ উজবেকিস্তান থেকেই সরাসরি শ্রীলঙ্কা যাবেন অনূর্ধ্ব-২৩ দলের ফুটবলাররা।

দলের সঙ্গে এমনিতেই জাতীয় দলের খেলোয়াড় আছেন ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন, রিয়াদুল হাসান, রহমত মিয়া, ইয়াছিন আরাফাত, মোহাম্মদ হৃদয় ও মাহবুবুর রহমান। এই ৬ জনের সঙ্গে ফয়সালের শ্রীলঙ্কা যাওয়া একপ্রকার চূড়ান্তই বলা যায়। তাঁদের সঙ্গে যোগ দিতে পারেন মিডফিল্ডার মানিক হোসেন মোল্লাও।

২ নভেম্বর সৌদি আরবের বিপক্ষে বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচ খেলে পরের দিনই শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে দেশ ছাড়ার কথা তাঁদের। শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত প্রাইম মিনিস্টার রাজাপক্ষে চার জাতি টুর্নামেন্টে ৮ নভেম্বর প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ সিশেলস। ১১ ও ১৪ নভেম্বর যথাক্রমে মালদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে লেমোসের দল।


২০২০ সালে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পান ফয়সাল। সেবার চূড়ান্ত দলে জায়গা করে নিলেও কোনো ম্যাচ খেলা হয়নি তাঁর। চলতি বছর জুনে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ৩ ম্যাচের জন্য ক্যাম্পে ডাক পেয়েছিলেন।

default-image

পাসপোর্ট জটিলতায় শেষ পর্যন্ত দলের সঙ্গে কাতার যাওয়া হয়নি। সদ্য সমাপ্ত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে কোচ জেমি ডের ৩৫ জনের প্রাথমিক দলে ছিলেন। কিন্তু অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে অস্কার ব্রুজোন ২৭ খেলোয়াড় ডাকলে কাটা পড়ে তাঁর নাম।

২০১৭ সালে অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে সোনার বুট জিতেছিলেন ফয়সাল। ২০১৯ সালেও অনূর্ধ্ব-১৮ সাফেও জিতেছিলেন সোনার বুট। বয়সভিত্তিক ফুটবলে আলো ছড়ানো এ কিশোর সাইফ স্পোর্টিংয়ের জার্সিতে ঘরোয়া ফুটবলেও উজ্জ্বল। সর্বশেষ মৌসুমে সাইফ স্পোর্টিংয়ের ২৪ ম্যাচের সব কটিতেই খেলেছেন। গোলও করেছেন ৩টি।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন