ম্যানচেস্টার সিটি! এ ক্লাবেই খেলেছেন আর্লিংয়ের বাবা আলফি হরলান্ড। ইংল্যান্ডের দৈনিক দ্য অ্যাথলেটিক বলছে, নরওয়েজিয়ান হরলান্ডের সঙ্গে চুক্তি হয়ে গেছে সিটির।
হরলান্ডকে পাওয়ার দৌড়ে রিয়াল ও সিটিই এগিয়ে ছিল। কিন্তু গত দুই সপ্তাহে বায়ার্নের নামও উঠে এসেছিল পরিস্থিতির বদলের কারণে।

একদিকে বায়ার্নের মূল গোল ভরসা রবার্ট লেভানডফস্কিকে নিয়ে খবর ছড়িয়েছে, তিনি বার্সেলোনায় যেতে আগ্রহী। এমন এক গোলস্কোরারকে হাতছাড়া করলে তাঁর শূন্যতা পূরণ তো করতে হবে, আর সে ক্ষেত্রে নিজেদের লিগেই নজর দেওয়ার কথা বায়ার্নের। লেভানডফস্কিকে যে ডর্টমুন্ড থেকেই এনেছে তারা! আর হরলান্ডের রিলিজ ক্লজ মাত্র ৭ কোটি ৫০ লাখ ইউরো। বাজারে তাঁর মানের ধারেকাছে আছেন, এমন কাউকে কিনতে চাইলে ১০ কোটি ইউরোর বাঁয়ে তাকানোর উপায় নেই।

কাল অবশ্য সব সম্ভাবনাই উড়িয়ে দিয়েছেন বায়ার্ন পরিচালক হাসান সালিহামিজিচ। স্পোর্তওয়ানের রিপোর্টারকে বলেছেন, ‘আমরা আর্লিং হরলান্ডের পরবর্তী ক্লাব হচ্ছি না, এটা নিশ্চিত।’ এরই মধ্যে কাল খবর এসেছে, সালজবুর্গ ফরোয়ার্ড করিম আদেমেয়িকে নিয়ে নিয়েছে ডর্টমুন্ড। প্রায় ৪ কোটি ইউরো দিয়ে একজন ফরোয়ার্ড নেওয়ার অর্থই হচ্ছে হরলান্ড ক্লাব ছাড়ছেন।

অ্যাথলেটিক সে খবরটাই দিয়েছে আজ। তাদের দাবি, ম্যান সিটির সঙ্গে আর্লিং হরলান্ডের চুক্তি হয়ে গেছে। অর্থাৎ কত বছরের চুক্তি, বেতন কত হবে, চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য কত বোনাস পাবেন—সবই ঠিক হয়ে গেছে। এখন শুধু দুই ক্লাবের মধ্যে দলবদলের অঙ্ক আর সে অঙ্ক হাতবদলের অপেক্ষা।

যেহেতু হরলান্ডের চুক্তিতে রিলিজ ক্লজ আছে, সেই আনুষ্ঠানিকতা শেষ হতে খুব একটা ঝামেলা পোহাতে হবে না। এ সপ্তাহেই নাকি রিলিজ ক্লজের সাড়ে সাত কোটি ইউরো দিয়ে হরলান্ডকে নিয়ে যাবে সিটি।

২০০০ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত সিটিতেই খেলেছেন হরলান্ডের বাবা আলফি হরলান্ড।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন