বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পাশাপাশি ক্লাব বার্সায়ও কোনো একটা ভূমিকায় ফেরার ইচ্ছা আছে তাঁর। সে ক্ষেত্রে ক্রীড়া পরিচালকের মতো ভূমিকায় বার্সাকে সাহায্য করার কথা জানালেন মেসি।

গত আগস্টে বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেন মেসি। এর মধ্য দিয়ে কাতালান ক্লাবটির সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ ২১ বছরের সম্পর্ক চ্ছিন্ন হয়। মেসি এবং বার্সেলোনাকে একসময় ‘একই বৃন্তে দুটি ফুল’–এর চোখে দেখা হলেও বাস্তবতা পাল্টেছে। আর্থিক সমস্যায় ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলারকে ধরে রাখতে পারেনি বার্সা।

default-image

কাতালান ক্লাবটির তরফ থেকে অন্তত এমন কথা বলা হয়েছে। পিএসজিতে যোগ দেওয়ার পর সেখানে মেসি সুখে থাকার কথা জানিয়েছিলেন এর আগে এক সাক্ষাৎকারে। এবার পেছন ফিরেও তাকালেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

মেসির ফেলে আসা পথের পুরোটাজুড়ে যে বার্সা, সে কথা না বললেও চলে। প্রাণের ক্লাবটিকে কি তাঁর কখনো মনে পড়ে না? মন পোড়ে না? ফেরার ইচ্ছা জাগে না?

সাক্ষাৎকারে মেসি জানিয়েছেন, বার্সেলোনা শহরে বসবাসের জন্য ফেরার পরিকল্পনা আছে তাঁর, এতটুকু নিশ্চিত। আর ক্লাব বার্সায় ফেরা?

সে ইচ্ছা আছে বলেও জানালেন মেসি, ‘হ্যাঁ, সব সময় বলে এসেছি আমি ক্লাবটিকে সাহায্য করতে চাই। একপর্যায়ে ক্লাবের টেকনিক্যাল সেক্রেটারি হতে চাই। এটা বার্সেলোনায় হবে কি না, তা আমি জানি না। তেমন সম্ভাবনা থাকলে আমি আবারও অবদান রাখতে চাই। কারণ, ক্লাবটিকে আমি ভালোবাসি এবং আরও উন্নতি করে বিশ্বের অন্যতম সেরা দল হয়ে উঠুক, তা দেখতে চাই।’

পিএসজির সঙ্গে গত আগস্টে দুই বছরের চুক্তি করেন ৩৪ বছর বয়সী মেসি। তবে চুক্তিপত্রে দুই পক্ষের সম্মতিতে চাইলে তাঁর মেয়াদ আরও এক বছর বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে। পিএসজি–ই মেসির শেষ ক্লাব হবে কি না, তা মেসি বলেননি। মেসি এর আগে অনেকবারই বলেছেন, সবকিছু মিললে শৈশবের ক্লাব আর্জেন্টিনার নিওয়েলস ওল্ড বয়েজে ক্যারিয়ার শেষ করতে চান। পিএসজির হয়ে এ মৌসুমে ৮ ম্যাচে ৩ গোল তাঁর।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন