লিওনেল মেসি ও বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কোমান
লিওনেল মেসি ও বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কোমান ছবি: রয়টার্স

ঝামেলাটা সেদিনই পাকিয়েছিলেন বার্সেলোনার কোচ রোনাল্ড কোমান। দল গ্রানাদার বিপক্ষে হেরে যাচ্ছে, এমন অবস্থায় মেজাজ কতক্ষণ ঠিক রাখা যায়? কোমানেরও ঠিক থাকেনি। চতুর্থ অফিশিয়ালের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে লাল কার্ড দেখে বসেন এই ডাচ কোচ। তবে শাস্তি যে শুধু অতটুকুতেই সীমাবদ্ধ থাকবে না, সেটা বেশ ভালোই বোঝা যাচ্ছিল। সেটাই নিশ্চিত করল রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের প্রতিযোগিতা কমিটি।

দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হয়েছে রোনাল্ড কোমানকে। এই দুই ম্যাচে মেসিরা মাঠে খেললেও ডাগআউটে থাকতে পারবেন না কোমান। মাঠের বাইরে থেকে দিতে পারবেন না প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা। এমন দুই ম্যাচে নিষিদ্ধ হয়েছেন কোমান, লিগের বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে যে দুই ম্যাচকে অনায়াসে মহাগুরুত্বপূর্ণ বলা যায়। আগামী রোববার ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে মেস্তায়ায় খেলবে বার্সেলোনা। ৮ মে নিজেদের মাঠে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা আতলেতিকোকে আতিথ্য জানাবে, এই দুই ম্যাচেই ডাগআউটে থাকবেন না কোমান।

বিজ্ঞাপন
default-image

কিন্তু কোমানের দোষ কি খুব বেশি ছিল? রেফারি গঞ্জালেজ ফুয়ের্তেস ম্যাচ রিপোর্টে লিখেছেন, চতুর্থ অফিশিয়ালকে তাচ্ছিল্য করে ‘কী চরিত্রের এক মানুষ!’ বলেছেন কোমান। আর তাতেই এতশত শাস্তি।

বার্সেলোনা আর সেভিয়া ৩৩ ম্যাচ করে খেলে ফেলেছে। এক ম্যাচ বেশি খেলেছে রিয়াল আর আতলেতিকো। ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে আতলেতিকো আছে সবার ওপরে, ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে তাদের ঠিক পেছনেই রিয়াল। এক ম্যাচ কম খেলে ৭১ আর ৭০ পয়েন্ট যথাক্রমে বার্সেলোনা ও সেভিয়ার। অন্যের ফর্মে তাকিয়ে না থেকে হাতে থাকা বাকি চার ম্যাচের প্রতিটায় যদি আতলেতিকো জেতে, তাহলে শিরোপা তাদের ঘরেই যাবে, রিয়াল বা বার্সার ঘরে নয়। আতলেতিকো কোচ দিয়েগো সিমিওনের এখন একটাই লক্ষ্য, হাতে থাকা বার্সেলোনা, ওসাসুনা, রিয়াল ভায়াদোলিদ ও রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে পূর্ণ ১২ পয়েন্ট নিয়ে ঘরে ফেরা।

default-image

আর সেটা যেন না হয়, সে জন্যই প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাবে রিয়াল আর বার্সা। লিগের বাকি পাঁচ ম্যাচে বার্সেলোনা লড়বে ভ্যালেন্সিয়া, আতলেতিকো, লেভান্তে, সেলতা ভিগো ও এইবারের সঙ্গে। রিয়ালের অবশিষ্ট ম্যাচগুলো সেভিয়া, বিলবাও, ভিয়ারিয়াল ও গ্রানাদার বিপক্ষে। আতলেতিকো চাইবে বার্সেলোনা, রিয়াল সোসিয়েদাদ, ওসাসুনা ও রিয়াল ভায়াদোলিদের সঙ্গে আর পয়েন্ট না হারাতে। কারণ, পয়েন্ট হারালেই শিরোপার আশা পুরোপুরি উবে যাবে।

আগামী ৮ মে ক্যাম্প ন্যুতে আতলেতিকোর বিপক্ষে খেলবে বার্সা। একই দিনে সেভিয়ার সঙ্গে খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। সে দিনটাই হয়তো গড়ে দেবে লা লিগার শিরোপা–ভাগ্য।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন