বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ এই মৌসুমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে খেলতে নামবে রিয়াল। লা লিগা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। কোপা দেল রে থেকে বহু আগেই ছিটকে পড়েছে। এখন বাকি শিরোপার নিষ্পত্তি হওয়ার অপেক্ষায়।

আজ বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত একটায় চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে নামবে রিয়াল। প্রতিপক্ষ ম্যানচেস্টার সিটির মাঠের এই মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নিজের নিশ্চিত একাদশের দুজনকে ছাড়া নামতে হতে পারে আনচেলত্তিকে। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে অকপটে সেটা স্বীকার করে নিয়েছেন রিয়াল কোচ।

default-image

লা লিগায় সর্বশেষ ওসাসুনার বিপক্ষে খেলেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সে ম্যাচে প্রথমার্ধে চোট পেয়েছেন সেন্টারব্যাক ডেভিড আলাবা। চোটের কারণেই ওসাসুনা ম্যাচে খেলা হয়নি মিডফিল্ডার কাসেমিরোর। ওদিকে লেফটব্যাক ফারলাঁ মেন্দি তো তিন ম্যাচ ধরেই নেই স্কোয়াডে। আজকের ম্যাচের আগে সংশয় ছিল তিনজনকে নিয়েই। যদিও মূল একাদশের গুরুত্বপূর্ণ তিন খেলোয়াড়কে নিয়েই ম্যানচেস্টারে হাজির হয়েছেন আনচেলত্তি।

আনচেলত্তিকে স্বস্তি দিয়ে এরই মধ্যে অনুশীলনে ফিরেছেন মেন্দি। কিন্তু গতকাল যখন সংবাদ সম্মেলন করেছেন, তখনো কাসেমিরো ও আলাবাকে নিয়ে তাঁর মনে সন্দেহ ছিল। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে কাল বলেছেন, ‘কাল (পরশু) অনুশীলনে যা দেখেছি, আলাবাকে নিয়ে কিছু সন্দেহ আছে, কাসেমিরোর ব্যাপারে সন্দেহ আরও বেশি। অনুশীলনই বলে দেবে কী অবস্থা। কাসেমিরোর চেয়ে আলাবাকে নিয়ে আত্মবিশ্বাসী আমরা।’

default-image

ম্যাচের আগে অবশ্য কথার খেলায় নেমে গেছেন আনচেলত্তি। কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগের আগে হার মেনে নেওয়ার সুর তুলে ঠিকই রিয়ালকে কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন চেলসি কোচ টমাস টুখেল। ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে সেমিফাইনালের আগে সে পথে এগোচ্ছেন আনচেলত্তিও। দুই সেমিফাইনালে দুই ইংলিশ ক্লাব সিটি ও লিভারপুলের বিপক্ষে দুই স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল ও ভিয়ারিয়ালকে আন্ডারডগ বলে মনে হচ্ছে তাঁর।

আজ ও কালকের ম্যাচে কাদের জয়ের সম্ভাবনা বেশি, সেটা জানাতে গিয়ে বলেছেন, ‘পিএসজি বা সিটির মতো ফেবারিট দলগুলোকে টপকে কেউ ভাবেনি এমন দুটি দল সেমিফাইনালে উঠেছে, একটা ভিয়ারিয়াল, অন্যটি আমরা।’

কিন্তু তাই বলে নিজেদের চাপ কম, সেটাও মনে করেন না। হাজার হলেও চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাস তো রিয়ালের পক্ষে, ‘আমার মনে হয়, এখানে চাপের কোনো তফাত নেই। দুই দলেরই সমান চাপ। রিয়াল মাদ্রিদের জন্য সেমিফাইনালে ওঠা কোনো সাফল্য না, ফাইনালে ওঠা সাফল্য। আর আমাদের লক্ষ্য ফাইনাল জেতা। সাধারণত ফাইনাল জেতার সম্ভাবনা রিয়ালেরই বেশি থাকে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন