বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কিছুদিন আগেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে নেমেছিল দুই দল। নিজেদের মাঠে সামান্যতম লড়াই করা তো দূরে থাক, উল্টো গোটা ৯০ মিনিট ধরে সিটির কাছে নাস্তানাবুদ হয়েছে ইউনাইটেড।

২-০ স্কোরলাইনটি হয়তো ম্যাচের অবস্থা সঠিকভাবে প্রকাশ করতে পারছে না, কিন্তু সে ম্যাচের পুরোটাতেই দেখা গেছে সিটির দাপট। রোনালদোরা সিটির নৈপুণ্য দেখেছেন হতাশ হয়ে। এখন কেভিন ডি ব্রুইনা জানালেন, সে ম্যাচের আগে তেমন অনুশীলনই করেননি তাঁরা!

default-image

অন্যান্য ম্যাচের আগের দিন সাধারণত প্রতিপক্ষের সম্ভাব্য কৌশল অনুযায়ী আলোচনা-অনুশীলন করেন সিটির খেলোয়াড়েরা। এ দিনে সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা মূলত নিজেদের কৌশলের ওপর কম গুরুত্ব দিয়ে প্রতিপক্ষ কেমন খেলতে পারে, এ ব্যাপারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন।

ইউনাইটেডের বিপক্ষে ওসবের ধার ধারেননি গার্দিওলা, ‘ম্যাচের আগের দিন আমরা সাধারণত প্রতিপক্ষের কৌশল অনুযায়ী অনুশীলন করি। আমি জানি না ওরা কীভাবে খেলবে। তাই আমরা ১০ মিনিটের মতো অনুশীলন করে থেমে যাই।’

অন্যান্য প্রতিপক্ষের ব্যাপারে গার্দিওলার আগে থেকে ধারণা থাকলেও ইউনাইটেডের কোনো নির্দিষ্ট পরিকল্পনা না থাকায় গার্দিওলা সেদিন বুঝে উঠতে পারেননি, কীভাবে খেলোয়াড়দের অনুশীলন করাবেন। ডি ব্রুইনা আরও বলেন, ‘পেপ সাধারণত আগে থেকেই জানেন, কীভাবে প্রতিপক্ষ খেলবে। ইউনাইটেডের বিপক্ষে তিনি জানতেন না। তাই এটাই জানতেন না, আমাদের কীভাবে অনুশীলন করাবেন। ম্যাচে আমরা সেটাই করেছি যা আমরা সাধারণত করে থাকি। তবে উনি বোঝেননি, ইউনাইটেড পাঁচ ডিফেন্ডার নিয়ে খেলবে, না চারজন নিয়ে খেলবে। মাঝমাঠে চারজন নিয়ে খেলবে না তিনজনকে সামনে রেখে খেলবে।’


না জেনেই ইউনাইটেডকে যেভাবে দাপট দেখিয়ে হারিয়েছে সিটি, জানলে না জানি কীভাবে হারাত!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন