হাজার চেষ্টা করেও গত রাতে গোল পাননি মেসি।
হাজার চেষ্টা করেও গত রাতে গোল পাননি মেসি। ছবি : রয়টার্স

লিগ ম্যাচে পয়েন্ট হারানোর বেদনা গত রাতেও কুরে কুরে খেয়েছে মেসিদের। আলাভেসের বিপক্ষে লিগ ম্যাচে ১-১ গোল ড্র করেছে বার্সেলোনা। প্রথমে লুইস রিওহার গোলে পিছিয়ে পড়লেও শেষমেশ আতোয়ান গ্রিজমানের গোলে রক্ষা পায় বার্সেলোনা। কিন্তু পরে একের পর এক আক্রমণেও সুবিধা করতে পারেনি তারা। গোলমুখে ২৫টি শট মেরেও কাজের কাজ হয়নি। চীনের প্রাচীরের মতো আলাভেসের গোলবার আগলে রেখেছিলেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক ফের্নান্দো পাচেকো ফ্লোরেস।

মেসির কথাই ধরুন। এই মৌসুমে ‘ওপেন প্লে’ থেকে গোল করার জন্য (পেনাল্টি ছাড়া গোল) হাপিত্যেশ করে মরছেন এই তারকা। যা করেছেন, সব পেনাল্টি থেকে। অপ্রত্যাশিত এই ধারায় ছেদ টানার কত চেষ্টাই না করে গেলেন কাল! আলাভেসের গোলমুখে বার্সার ২৫টি শটের ১০টিই ছিল এই তারকার। বার্সার হয়ে সর্বশেষ ৪১ ম্যাচে ৪৫ বার সরাসরি ফ্রি-কিক নিয়েও গোল করতে পারেননি, এই ধারাও বজায় থেকেছে কাল। আলাভেসের খেলোয়াড়দের বোকা বানিয়ে ১৩ বার ‘টেক অন’ সম্পন্ন করেছেন এই আর্জেন্টাইন তারকা, গত পাঁচ বছরে এত বেশি ‘টেক অন’ এক ম্যাচে কখনো করেননি। এত কিছুর পরেও গোলের ভাঁড়ার শূন্য। বীতশ্রদ্ধ হয়ে ওঠাই স্বাভাবিক।

তবে বীতশ্রদ্ধ হয়ে মেসি যা করেছেন, সেটাই আলোচনার জন্ম দিয়েছে। জন্ম দিয়েছে বিতর্কের। ম্যাচের ৩৯ মিনিটে বিরক্ত হয়ে বলের ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন এই তারকা। মাটিতে থাকা বলটায় রেগেমেগে লাথি মারলেন, যেটি আরেকটু হলেই আঘাত করত রেফারি আলেহান্দ্রো এর্নান্দেস এর্নান্দেসকে। রেফারির চোখেও পড়েছে বিষয়টা। ঘটনার পরপরই হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন এই আর্জেন্টাইন তারকাকে। হলুদ কার্ড দেখার পরেও মেসির কোনো ভাবান্তর হয়েছে বলে মনে হয়নি। পাত্তাই দিলেন না যেন। উল্টো সার্জিও বুসকেতস আর জর্দি আলবা রেফারির কাছে গেলেন তাঁর হয়ে ‘ওকালতি’ করতে, যাতে তাঁকে কোনো কার্ড দেখানো না হয়। লাভ হয়নি।

default-image
বিজ্ঞাপন

তবে এমন কাণ্ডে মেসি যদি লাল কার্ডও দেখতেন, আশ্চর্যের কিছু হতো না। এর আগে রেফারিকে শুধু স্পর্শ করেই লাল কার্ড দেখেছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ফলে, রেফারির দিকে বল মারার জন্য মেসি লাল কার্ড কেন দেখলেন না, এ নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কার রেফারি বিশেষজ্ঞ হুয়ান আন্দুজার অলিভার রেডিও মার্কা অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন, লাল কার্ড দেখানো উচিত ছিল মেসিকে, ‘আমার মতে, ওকে মাঠ থেকে বের করে দেওয়া উচিত ছিল লাল কার্ড দেখিয়ে। যদিও বলটা রেফারিকে সরাসরি আঘাত করেনি, তা-ও। ও এই কাজটা করে রেফারিকে ভয় দেখাতে চেয়েছে। ফলে, এই কাজের জন্য ওর লাল কার্ড দেখাই উচিত ছিল।’

একে তো গোল পাচ্ছেন না, তার ওপর উটকো ঝামেলা হিসেবে এই বিতর্ক। মেসির বিরক্তি হয়তো আরও বেড়েছে এখন!

মন্তব্য পড়ুন 0