আফগানিস্তানে যুদ্ধে যাওয়ার আগে পর্তুগালের পুলিশ বিভাগের সদস্য ছিলেন এই দুই ভাই। বিচারক ও রাজনীতিবিদদের নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন তাঁরা। পর্তুগিজ সংবাদমাধ্যম অবজারভাদর জানায়, অবৈধ কাগজপত্র দেখিয়ে নিরাপত্তারক্ষী হিসেবে কাজ করার অভিযোগ উঠেছে সের্হিও ও জর্জের বিরুদ্ধে।

বেসরকারি নিরাপত্তারক্ষীর এই কাজ তাঁরা পুলিশের অনুমতি ছাড়াই করায় আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়ানো লাগতে পারে বলে জানিয়েছে এই সংবাদমাধ্যম। পর্তুগাল পুলিশ বিভাগে ফেরার পর তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

default-image

পর্তুগাল পুলিশ বিভাগের এক মুখপাত্র ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মিররকে বলেন, ‘বিষয়টি তদন্তাধীন থাকায় আমরা এখন কোনো মন্তব্য করতে পারব না।’

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা রোনালদোর দেহরক্ষীর চাকরি পাওয়া এই দুই ভাইকে অবৈতনিক ছুটিতে যেতে বলেছিল পর্তুগিজ পুলিশ বিভাগ। তাঁদের অন্য কোনো লক্ষ্য থাকলে তাতে মনোযোগ দেওয়ার কথা বলা হয় পুলিশ বিভাগ থেকে। এর পরই রোনালদোর ডাক পান দুই ভাই।

তাঁদের আরও একটি ভাই আছে। তিনজন একই সঙ্গে জন্মেছেন।এর আগে সুইস দল ইয়ং বয়েজের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচ খেলতে যাওয়ার সময় ম্যানচেস্টার বিমানবন্দরে রোনালদোর সঙ্গে দেখা গেছে এই দুই দেহরক্ষীকে।

তাঁরা যোগ দেওয়ার আগে রোনালদোর দেহরক্ষী ছিলেন সাবেক এক মিক্সড মার্শাল আর্ট খেলোয়াড় এবং এলিট ফোর্সে কাজ করা সাবেক এক প্যারাট্রুপার। নুনো মারেকোস নামের সাবেক এই প্যারাট্রুপারকে রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদে থাকতে তাঁর সঙ্গে দেখা গেছে।

২০১৮ সালে কিয়েভে চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে রোনালদোর নিরাপত্তা নিশ্চিতের কাজে দেখা গেছে সাবেক এমএমএ খেলোয়াড় গনকালো সালগাদোকে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন