বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রথমার্ধে ম্যাচের ফলাফল ছিল বাংলাদেশ ১-২ কিরগিজস্তান। ৫৮ মিনিটে ১-৩ হওয়ার পর আজও বড় হারের শঙ্কা জেগে উঠেছিল। ৬২ মিনিটে ২-৩ করে স্কোর বোর্ডটা ভদ্রস্থ চেহারায় নিয়েছেন সুমন। অথচ প্রথমে কিরগিজস্তান সফরের দলেই ছিলেন না প্রিমিয়ার লিগে ৮ গোল করা উত্তর বারিধারার এই স্ট্রাইকার। মাসুক মিয়া জনি চোট পেলে তাঁর জায়গায় নেওয়া হয় সুমনকে।

default-image

১১ মিনিটে সুমন রেজার দুর্দান্ত গোলে বাংলাদেশ এগিয়ে যায়। অ্যাটাকিং থার্ডে প্রতিপক্ষের পাস কেড়ে নিয়ে প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে বাম পায়ের বুলেট গতির শটে গোলের খাতা খুলেছেন সুমন। বাংলাদেশের স্ট্রাইকারদের পায়ে সাধারণত এমন গোল দেখা যায় না। ৬২ মিনিটে তাঁর দ্বিতীয় গোলটাও দুর্দান্ত। বক্সের ওপর থেকে ডান পায়ের ভলি। স্বাগতিক অলিম্পিক দলের পক্ষে ২৪, ২৮ ও ৫৮ মিনিটে যথাক্রমে গোল করেছেন জানিবেক, বোরুবায়েভ ও আলিগুলোভ।

default-image

আজ নিয়মিত একাদশের খেলোয়াড়দের বিশ্রামে রেখেছিলেন জেমি ডে। আগের ম্যাচের একাদশ থেকে ৯ জনকে বাদ দিয়ে একাদশ সাজিয়েছিলেন তিনি। আগের ম্যাচ থেকে একাদশে ছিলেন শুধু কানাডাপ্রবাসী রাহবার ওয়াহেদ খান ও ফরোয়ার্ড রাকিব হোসেন। গোলরক্ষক হিসেবে জাতীয় দলে অভিষেক হয়েছে উত্তর বারিধারার মিতুল মারমার। বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ডিফেন্ডার রেজাউল করিম।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন