বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বার্সেলোনায় ব্রাত্য হয়ে পড়া সুয়ারেজ ন্যু ক্যাম্প ছেড়ে যাওয়ার দিন পরোক্ষে একটি হুমকিই দিয়ে গিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, আতলেতিকোতে নিজের সর্বস্ব উজাড় করে দিয়ে খেলবেন। সেটা তিনি করছেনও। গত মৌসুমে আতলেতিকোর জার্সি গায়ে তোলার ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোর দলটির হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪৮ ম্যাচ খেলে করেছেন ২৬ গোল, যার মধ্যে চলতি মৌসুমে ১০ ম্যাচে ৫ গোল করেছেন। আতলেতিকো জিতেছিল লা লিগার শিরোপা।

default-image

সুয়ারেজ যখন দুর্দান্ত ছন্দে এগিয়ে চলেছেন, কোমানের বার্সা তখন ধুঁকছে। কাল তো লা লিগায় সুয়ারেজের দল আতলেতিকোর কাছেই হেরেছে বার্সেলোনা। ২-০ গোলের সেই হারে আতলেতিকোর একটি গোল করেছেন সুয়ারেজও। ম্যাচের আগে বলেছিলেন, তাঁর বিশ্বাস যে তিনি বার্সেলোনার বিপক্ষে গোল পাবেন। তবে গোল পেলেও বার্সাকে সম্মান দেখিয়ে উদ্‌যাপন করবেন না বলেছিলেন। সুয়ারেজ তাঁর কথা রেখেছেন। ৪৪ মিনিটে দলের দ্বিতীয় গোলটি করেই দুহাত জোড় করে বার্সেলোনার সমর্থকদের উদ্দেশে ক্ষমা চাওয়ার ভঙ্গি করেছেন তিনি।

default-image

গোল করার পর আরও একটি ভঙ্গি সুয়ারেজ করেছেন। কানের কাছে ডান হাত নিয়ে ফোন করার মতো একটা ভঙ্গি। অনেকেই বলছেন, সেটা তিনি করেছেন নিষেধাজ্ঞার কারণে ডাগআউটে দাঁড়াতে না পেরে গ্যালারিতে থাকা বার্সেলোনার কোচ কোমানের উদ্দেশে। বার্সেলোনা ছাড়ার কিছুদিন আগে নাকি সুয়ারেজকে ফোন করে ডাচ কোচ কোমান বলেছিলেন, তিনি তাঁর পরিকল্পনায় নেই! দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়ে ফুটবল বিশ্বে এখন অনেকেই বলছেন, কোমানের সেই ফোনের জবাব এভাবে দিয়েছেন সুয়ারেজ।

কিন্তু ম্যাচ শেষে সুয়ারেজ বলেছেন, এ ভঙ্গি কোমানের উদ্দেশে নয়। ফোন করার ভঙ্গিটা কেন করেছেন, সেই ব্যাখ্যাও দিয়েছেন আতলেতিকোর উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার, ‘এটা তাদের জন্য করেছি, যারা জানে যে আমার আগের সেই নম্বরই আছে এবং আমি পুরোনো সেই ফোনই ব্যবহার করছি। এটা কোমানের উদ্দেশে নয়।’

সে যা-ই হোক, সুয়ারেজ কাল কোমানকে যে একহাত নিতে পেরেছেন, সেটি না বললেও চলে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন