আরেক কীর্তি সুয়ারেজের।
আরেক কীর্তি সুয়ারেজের।ছবি : রয়টার্স

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসি, জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ ও রবার্ট লেফানডভস্কি। বিশেষ সেই ‘ক্লাব’টা এত দিন এই চার তারকার দখলে ছিল। কাল রাতে সেখানে যোগ হয়েছে নতুন নাম—লুইস সুয়ারেজ!

লা লিগায় আলাভেসকে কাল ১-০ গোলে হারিয়েছে আতলেটিকো মাদ্রিদ। ৫৪ মিনিটে জয়সূচক গোলটি উরুগুয়ে তারকা সুয়ারেজের। এর মধ্য দিয়ে ক্যারিয়ারে ৫০০ গোলের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেললেন আতলেতিকো ফরোয়ার্ড। বর্তমানে খেলছেন, এমন ফুটবলারদের মধ্যে সুয়ারেজের আগে এ মাইলফলকের দেখা পেয়েছেন শুধু রোনালদো, মেসি, ইব্রাহিমোভিচ ও লেফানডভস্কি। ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে ইংলিশ রাইটব্যাক কিয়েরন ট্রিপিয়েরের ক্রস থেকে হেডে গোলটি করেন সুয়ারেজ। আর তাতেই নিশ্চিত হয়ে যায়, এমন এক ছোট্ট তালিকায় সুয়ারেজ ঢুকেছেন, যেখানে প্রবেশাধিকার আছে শুধু উঁচু মানের গোলশিকারিদের।

বিজ্ঞাপন

এই মৌসুমের শুরুতে বার্সেলোনা থেকে আতলেতিকো মাদ্রিদে যোগ দেওয়া এই স্ট্রাইকার এ নিয়ে ৩১ ম্যাচে ১৯ গোল করলেন। বার্সেলোনায় ২৮৩ ম্যাচে করেছিলেন ১৯৮ গোল। এর আগে খেলতেন ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলে, সেখানে ১৩৩ ম্যাচে ৮২ গোল করেছেন। তবে সুয়ারেজের সুয়ারেজ হয়ে ওঠা কিন্তু আয়াক্সেই। ২০১০ সালের বিশ্বকাপে যখন উরুগুয়ের হয়ে আলো ছড়াচ্ছিলেন, সে সময়ে ক্লাব ক্যারিয়ারে এই আয়াক্সের হয়ে খেলতেন। সেখানে ১৫৯ ম্যাচে ১১১ গোল করেছিলেন। আয়াক্সে যোগ দেওয়ার আগে নেদারল্যান্ডসেরই গ্রোনিঙ্গেন ক্লাবের হয়ে ৩৭ ম্যাচে ১৫ গোল করেছিলেন উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার। পেশাদার ফুটবল শুরু করেছিলেন উরুগুয়ের ক্লাব ন্যাসিওনালে। সেখানে ৩৪ ম্যাচে ১২ গোল করে পাড়ি জমান নেদারল্যান্ডসে। আর জাতীয় দলের জার্সিতে ১১৬ ম্যাচে ৬৩ গোল করেছেন সুয়ারেজ।

অর্থাৎ উরুগুয়ের ইতিহাসে প্রথম ফুটবলার হিসেবে পেশাদার জগতে ন্যূনতম ৫০০ গোলের রেকর্ড করা হয়ে গেছে সুয়ারেজের। গোল ও সাফল্য বিচারে বার্সাতেই সেরা সময় কেটেছে তাঁর। কাতালান ক্লাবটিতে ছয় মৌসুম কাটিয়ে চারবার লিগ ও একবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছিলেন সুয়ারেজ। বর্তমান ফুটবলারদের মধ্যে পেশাদার ফুটবলে রোনালদোর গোলসংখ্যা সবচেয়ে বেশি। ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত ১০৯০ ম্যাচ খেলে ৭৮৮ গোল করেছেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

৯৬৬ ম্যাচে ৭৬১ গোল নিয়ে দুইয়ে সুয়ারেজের সাবেক বার্সা সতীর্থ লিওনেল মেসি। এসি মিলান তারকা ইব্রাহিমোভিচ ৯৫৮ ম্যাচে ৫৭১ গোল নিয়ে তিনে এবং বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেফানডভস্কি ৮১২ ম্যাচে ৫৪১ গোল নিয়ে চারে আছেন। দেশ ও ক্লাব মিলিয়ে ক্যারিয়ারের ৭৯৪তম ম্যাচে এসে এ মাইলফলকের দেখা পেলেন সুয়ারেজ। অর্থাৎ গড়ে প্রতি দেড় ম্যাচে একটি করে গোল করেছেন তিনি।

default-image

অবশ্য অনন্য অর্জনের রাতটা তিতকুটে হয়ে যেত সুয়ারেজের জন্য, যদি গোলকিপার ইয়ান ওবলাক দেয়াল হয়ে না দাঁড়াতেন। জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারত না আতলেতিকো। ৮৬ মিনিটে আলাভেসের স্প্যানিশ স্ট্রাইকার হোসেলুর পেনাল্টি রুখে দেন ওবলাক। ২৮ ম্যাচে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে আতলেতিকো মাদ্রিদ। তাদের সমান ম্যাচে ৬২ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে বার্সেলোনা। ৬০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে রিয়াল মাদ্রিদ।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন