হঠাৎই চলে গেলেন সাবেক ফুটবলার সালাউদ্দিন

বিজ্ঞাপন
default-image

গোলাম রাব্বানী হেলালের মৃত্যু শোকের মধ্যেই দেশের ফুটবলে এল আরেকটি দুঃসংবাদ। গতরাত সাড়ে চারটার দিকে মারা গেছেন সাবেক ফুটবলার এসএম সালাউদ্দিন ( ৬০)। তাঁর শরীরে করোনার উপসর্গ ছিল। তবে দুদিন আগে করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ আসে।

ফুটবলারের 'খনি' নারায়ণগঞ্জ থেকে উঠে এসে সালাউদ্দিন ঢাকায় ফুটবলে নজর কাড়েন। মূলত স্টপার ছিলেন । ১৯৮২ সালে বিজেএমসি দিয়ে শুরু। এরপর ৩ বছর ফরাশগঞ্জে খেলেছেন। দলটির অধিনায়ক ছিলেন। ওয়ান্ডারার্সে ২ বছর খেলে এই দলটিকেও নেতৃত্ব দেন। এরপর আদমজী ঘুরে ১৯৯০ থেকে ৩ বছর মোহামেডান তাঁবুতে কাটান।

তাঁর সমকালীন নারায়ণগঞ্জের সাবেক ফুটবলার আবু জোবায়ের আজ প্রথম আলোকে বলেন, '১৯৮৯ সালে প্রেসিডেন্ট গোল্ডকাপে আমি সবুজ দলে খেলেছি, সালাউদ্দিন ছিল লাল দলে। ডিফেন্সে তখন একাদশে জায়গা পাওয়া ছিল কঠিন। তবে পরে একাদশে খেলেছে। ১৯৯০ সালে বেইজিং এশিয়ান গেমসে ছিল। জাতীয় দলে খেলেছে ৩ বছর। সালাউদ্দিনের মৃত্যুতে আমরা ভীষণ শোকাহত।'

নারায়ণগঞ্জ থেকে উঠে আসা আরেক সাবেক ফুটবলার জাকির হোসেনও শোকাহত। প্রথম আলোকে ফোনে বলেন, 'গত ৭-৮ দিন থেকে তাঁর জ্বর ছিল। দু দিন আগে করোনার টেস্টে নেগেটিভ আসে। শুনেছি, গতরাত রাত ৪ টা পর্যন্ত বাসায় আড্ডা মারেন। এর পরই মৃত্যুর কােলে ঢলে পড়েন। এমন মৃত্যু মেনে নেওয়া কষ্টকর।'

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন