default-image

এই টুর্নামেন্টের জন্য খেলোয়াড় ছাড়তে রাজি হয়নি মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র, বসুন্ধরা কিংস। বসুন্ধরা কিংসের ডিফেন্ডার ইয়াছিন আরাফাত, রিমন হোসেন, মোহামেডানের শেখ মোরসালিন, আশরাফুল হককে ছাড়তে রাজি হয়নি এই ক্লাবগুলো। আর শেখ রাসেল ছাড়েনি ডিফেন্ডার রোস্তম ইসলামকে। এই দলের সর্বোচ্চ ১২ খেলোয়াড় বাফুফে এলিট একাডেমির। তাই স্বাভাবিকভাবেই এই ফুটবলারদের ওপর আস্থা রাখেন কোচ পল স্মলি। কমলাপুর স্টেডিয়ামে সারাক্ষণ অনুশীলন করানো পলের আস্থার কী দারুণ প্রতিদানই না দিলেন মিরাজুল!

ম্যাচের ৭১ মিনিটে বক্সের মধ্যে থাকা শাহিন মিয়ার পাস থেকে দেখেশুনে ঠান্ডা মাথায় শট নেন মিরাজুল। শ্রীলঙ্কার গোলরক্ষক শেনবানুকা বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়েও শেষ রক্ষা করতে পারেননি। গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে বল ঢোকে জালে।

পুরো ম্যাচে বলার মতো একটাই আক্রমণ ছিল শ্রীলঙ্কার। ৫১ মিনিটে। শ্রীলঙ্কার ফরোয়ার্ড থেসান থুসমিকার জোরালো শট বাংলাদেশের গোলরক্ষক মোহাম্মদ আসিফ দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেন। সাফে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ম্যাচ ২৭ জুলাই, প্রতিপক্ষ ভারত। এর আগে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে নেপাল ৪-০ গোলে হারিয়েছে মালদ্বীপকে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন