জার্মান বুন্দেসলিগায় শনিবার রাতে হার্থা বার্লিনের বিপক্ষে ৩-২ গোলে জিতেছে বায়ার্ন। এই জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠলেও ডেভিসের চোট দুশ্চিন্তায় ফেলেছিল বাভারিয়ানদের। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে হ্যামস্ট্রিংয়ে টান লাগে ডেভিসের। ৬৪ মিনিটে ফিজিওদের সহায়তায় মাঠ ছাড়েন।

গত বুধবার নিজের ২২তম জন্মদিনের কেট কাটা ডেভিসের সেই চোটে তাঁর জীবনে তিন দিনের মধ্যেই নেমে আসে ঘোর অন্ধকার। ম্যাচ শেষে বায়ার্ন কোচ ইউলিয়ান নাগলসমান জানিয়েছিলেন, স্ক্যান রিপোর্ট হাতে আসার পর কানাডিয়ান তারকার চোট সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যাবে।

রিপোর্ট পাওয়ার পর কানাডাকে সুখবরই দিয়েছে বায়ার্ন। ক্লাবটি জানিয়েছে, আলফনসো ডেভিস বুন্দেসলিগায় পরের দুই ম্যাচ খেলতে পারবেন না। তবে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ নিয়ে কোনো ঝুঁকি নেই। মাঠ ও মাঠের বাইরে সাম্প্রতিক সময়টা ভালো কাটেনি ডেভিসের।

দীর্ঘদিনের প্রেমিকা জর্দিন হুইটেমার সঙ্গে গত মে মাসে বিচ্ছেদ হয়েছে। ব্যক্তিগত জীবনের ধাক্কা সামলে নতুন মৌসুমে ফিরলেও আগস্টে পায়ের মাংসপেশিতে চোট পান। সেই চোটের পর ফর্মটাও একটুখানি পড়ে গেছে। কমেছে দৌড়ের গতি। তবে বিশ্বকাপে নিশ্চয় পুরোনো ছন্দে ফিরতে চাইবেন।

কনক্যাকাফ অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ১৩ ম্যাচ খেলে সমানসংখ্যক গোলে অবদান রেখেছেন ডেভিস। নিজে করেছেন ৫ গোল, সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ৮টি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে শেষ কয়েকটি ম্যাচ মিস না করলে নিশ্চয় পরিসংখ্যানটা আরও সমৃদ্ধ হতে পারত। ২০ নভেম্বর শুরু হচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ।

‘এফ’ গ্রুপে পড়া কানাডার অভিযানে নামবে ২৩ নভেম্বর। শুরুতেই কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে ডেভিসের দলকে। ওই দিন কানাডা লড়বে শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিপক্ষে। গ্রুপ পর্বে তাদের বাকি দুই প্রতিপক্ষ উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কো ও গতবারের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়া।