ম্যাচের শুরুতে ম্যাকাবি হাইফা এগিয়ে যাওয়ার পর স্বাগতিক গ্যালারিতে যে উচ্ছ্বাস দেখা গিয়েছিল, সেদিকে ইঙ্গিত করে দর্শকদের বিদ্রূপ করছেন নেইমার—রেফারি সম্ভবত এমনটাই মনে করেছিলেন। এ কারণেই হলুদ কার্ড দেখান নেইমারকে। প্রথমে হতবাক, এরপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন পিএসজির ফরোয়ার্ড। তবে প্রতিবাদ জানালেও কার্ড বহাল রাখেন জার্মান রেফারি।

খেলা শেষে রেফারির সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করে একের পর এক টুইট করেন নেইমার। যে উদ্‌যাপনের জন্য কার্ড দেখানো হয়েছে, তার একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশন দেন, ‘আমি জিজ্ঞাসা করছি, এটা কি ঠিক আছে?’

এরপর আরেকটি টুইটে রেফারির প্রতি ক্ষোভ ঝেড়ে লিখেছেন, ‘একজন খেলোয়াড়ের প্রতি সম্মানের অভাবেই এমনটা করা হয়। এ ধরনের ব্যাপার ঘটতে পারে না। আমি কিছুই করিনি, কিন্তু হলুদ কার্ড দেখতে হলো। এর জন্য আমাকে ক্ষতির সম্মুখীনও হতে হবে। আর যিনি বিচারক? ভুল যে করেছেন, সেটাও মানতে চান না।’

ম্যাচ শেষে নেইমার অবশ্য মিক্সড জোনে সাংবাদিকদের অন্য কথাই বলেছেন, ‘মাত্র রেফারির সঙ্গে কথা বললাম। উনি ক্ষমা চেয়েছেন। কিন্তু আমার নামের সঙ্গে তো একটা হলুদ কার্ড সেঁটে গেছে। একজন রেফারিরই কিন্তু খেলোয়াড়দের সুরক্ষা দেওয়ার কথা। আমার সঙ্গে আজ যা ঘটেছে, তা দুঃখজনক।’

উদ্‌যাপনের দায়ে হলুদ কার্ড দেখার পর ফুটবলের নতুন নতুন নিয়মকানুন নিয়েও হতাশা প্রকাশ করেছেন নেইমার, ‘ফুটবলটা দিন দিন বিরক্তিকর হয়ে যাচ্ছে। উদ্‌যাপনও করা যায় না। আমি এখানে কী করতে পারতাম? রেফারি বা উয়েফাকে বলতাম, আমাকে হলুদ কার্ড দেবেন না! আমি জানি না। এটা বাজে, সম্মানজনক নয়। শুধু আমার জন্য নয়, ফুটবলের জন্যও।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন