আগামী মৌসুমে রোনালদোর ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলবে না। যে কারণে ইউনাইটেড ছাড়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন রোনালদো। চেলসি থেকে শুরু করে বায়ার্ন মিউনিখ, পিএসজি, আতলেতিকো মাদ্রিদ, এএস রোমা এমনকি নিজের শৈশবের ক্লাব স্পোর্তিং লিসবনের সঙ্গে জড়াচ্ছে রোনালদোর নাম।

রোনালদোর এজেন্ট জর্জে মেন্দেজ এসব ক্লাবের কাছে ধর্না দিচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এর মধ্যে চেলসি, বায়ার্ন আর পিএসজি তো জানিয়েই দিয়েছে, রোনালদোকে দলে টেনে রসায়ন নষ্ট করতে চায় না তারা। এবার রোনালদো নিজেই জানিয়ে দিলেন, শৈশবের ক্লাব স্পোর্তিং লিসবনে যোগ দেওয়ার জন্য এখনই পর্তুগালে ফিরছেন না তিনি।

default-image

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে স্পোর্তিংয়ের সঙ্গে রোনালদোকে জড়িয়ে শোনা যাচ্ছে অনেক কিছুই। মাত্র একটা শব্দ ব্যবহার করে সেসব গুঞ্জনকে থামিয়ে দিয়েছেন রোনালদো।

কীভাবে? বিস্তারিত জানা যাক। সেদিন স্পোর্তিংয়ের মাঠ এস্তাদিও জোসে আলভালাদের গ্যারেজে একটা নতুন গাড়ির সন্ধান পাওয়া যায়। দুধসাদা দামি গাড়িটা রোনালদোর, এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সবাই অনুমান করতে থাকেন, রোনালদো বুঝি স্পোর্তিংয়ে ফেরার ব্যাপারে আলোচনা করতে এসেছেন। এই ব্যাপারটা নিয়ে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট দিয়েছে স্পোর্ত টিভি পর্তুগাল বলে একটি অ্যাকাউন্ট। প্রায় ২০ বছর আগে স্পোর্তিংয়ে খেলার সময় রোনালদোর ছবির সঙ্গে এখনকার রোনালদোর গায়ে স্পোর্তিংয়ের জার্সি চাপিয়ে সেই দুই ছবির সঙ্গে গাড়ির ছবি কোলাজ করে বেশ খাটাখাটনি করেই পোস্টটা করেছে তারা।

default-image

কিন্তু স্পোর্ত টিভি পর্তুগালের এত খাটনি এক নিমেষেই অর্থহীন করে দিয়েছেন রোনালদো। সেই পোস্টের মন্তব্যের ঘরে এক শব্দে লিখেছেন, ‘ফেইক’। অর্থাৎ, স্পোর্তিংয়ের গ্যারেজে থাকা ওই গাড়িটি রোনালদোর নয়, রোনালদো নিজেও দলটায় ফিরছেন না। শৈশবের ক্লাবের সঙ্গে তাঁকে জড়িয়ে ওঠা সব গুঞ্জনই ‘মিথ্যে’।

সাম্প্রতিক সময়ে এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো কোন ক্লাবকে সরাসরি ‘না’ বললেন রোনালদো। কিছুদিন আগে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সৌদি ক্লাবের কাছ থেকে বছরে ২৫ কোটি ইউরোর প্রস্তাব পেয়েছিলেন রোনালদো। বাংলাদেশি মুদ্রায় বর্তমানে যেটি ২,৩৪৬ কোটি টাকা। এজেন্টের মাধ্যমে সে প্রস্তাবকেও না করে দিয়েছিলেন রোনালদো।

অবশ্য সৌদির ক্লাব কিংবা স্পোর্তিংয়ের মতো ক্লাবের সঙ্গে নাম জড়ালে রোনালদো যেখানে অস্বীকার করতে দেরি করছেন না, চেলসি-পিএসজি কিংবা বায়ার্নের মতো ক্লাবের সঙ্গে নাম জড়ালে সে রোনালদোকেই কিছু বলতে শোনা যায় না। রোনালদো ইউনাইটেড ছেড়ে চেলসি বা বায়ার্নের মতো ক্লাবে যোগ দিতে চান, রোনালদোর আচরণ কী তবে সে দিকেই ইঙ্গিত করছে না?

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সে ব্যাপারেও কথা বলছেন, নিজেদের অসন্তুষ্টি প্রকাশ করছেন ইউনাইটেড-ভক্তরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইউনাইটেডের বৈশ্বিক ভক্ত-সমর্থকদের অন্যতম প্ল্যাটফর্ম ‘দ্য ইউনাইটেড স্ট্যান্ড’-এর উপস্থাপক মার্ক গোল্ডব্রিজই যেমন, লিখেছেন, ‘ব্যাপারটা মজার যে রোনালদো স্পোর্তিংসংক্রান্ত গুঞ্জনকে মিথ্যে বলে, কিন্তু চেলসি বা বায়ার্নের ব্যাপারে নয়!’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন