বার্সেলোনায় ব্রাজিলিয়ান জাদুকরদের দেখা তো আর কম মেলেনি! গত শতাব্দীর শেষ ভাগে রোমারিও, রোনালদো, রিভালদোরা খেলেছেন, এরপর এই শতাব্দীর শুরুতে রোনালদিনিও এসেই ঝিমিয়ে পড়া বার্সাকে আবার জাগানোর কাজটা শুরু করেছেন। মাঝে নেইমার গিয়ে কয়েক মৌসুম ব্রাজিলিয়ান ছন্দে মন রাঙিয়েছেন। ফিলিপে কুতিনিও, ম্যালকমরা ব্যর্থ হলেও ক্যাম্প ন্যুতে ব্রাজিলিয়ান সাম্বার ছন্দ আবার রাফিনিয়ার পায়েই ফিরবে, এমনই বিশ্বাস লাপোর্তার।

রাফিনিয়াকে দলে টানার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা তো দুই দিন আগেই দিয়েছে বার্সা, আজ হয়েছে সংবাদমাধ্যমের সামনে ২৫ বছর বয়সী উইঙ্গারের বার্সেলোনার জার্সিতে পরিচিতি। সেখানেই যুগে যুগে নিজেদের ক্লাবে ব্রাজিলিয়ানদের আলো ছড়ানোর ইতিহাস টেনে এনে লাপোর্তা বললেন, ‘আমাদের জন্য খুব দারুণ একটা সময়। আমাদের ক্লাবের যত সোনালি যুগ গেছে, তার প্রতিটিতেই দলে অন্তত একজন ব্রাজিলিয়ান ছিলেন। রাফিনিয়া আমাদের সেই ব্রাজিলিয়ানদের ধারায় ফিরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।’

ব্রাজিলিয়ান গেছেন ক্লাবে, তাতে জোগো বোনিতোও ক্লাবে ফিরবে? লাপোর্তার বিশ্বাস তেমনই, ‘ক্লাবটাতে আনন্দ, আশা, জাদুকরি সময় ফেরাতে হবে আমাদের। জোগো বোনিতো ফিরে এসেছে। ক্লাবটার জন্য সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। জাভি আমাদের বারবার বলেছে যে ওকে (রাফিনিয়া) তার লাগবে। বার্সেলোনার হয়ে খেলতে ওর (রাফিনিয়া) তীব্র ইচ্ছা দেখেও আমরা কৃতজ্ঞ। ওটাই দলবদলে বড় ভূমিকা রেখেছে।’

রাফিনিয়া নিজেও অবশ্য প্রেরণার গল্পে পূর্বসূরি ব্রাজিলিয়ানদের কথাই বলেছেন। সবার আগে থাকল ফুটবল পায়ে সদাহাস্য এক জাদুকরের কথা, ‘রোনালদিনিওর কারণেই আমি বার্সেলোনার প্রেমে পড়ি। এর পর থেকে এই ক্লাবটাতে খেলা আমার বড় একটা স্বপ্ন। আদর্শ হিসেবে আরও অনেকেই ছিলেন—ডেকো, নেইমার...তাঁদের প্রত্যেকেই আমার মনে, এখানে এসে খেলা ও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নে বড় প্রভাব ফেলেছেন।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন