আর্সেনালের আগে যে চারবার প্রথম ১৯ ম্যাচে একটি দল ৫০ বা এর বেশি পয়েন্ট তুলেছে, ফিরে দেখা যাক সেই আসরগুলো:

চেলসি (২০০৫-০৬)

মৌসুমের প্রথমার্ধে ৫০ পয়েন্ট জোগাড় করে ফেলার প্রথম কীর্তিটি চেলসির। ২০০৫-০৬ মৌসুমে ১৯ ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট তুলেছিল হোসে মরিনিওর দল। সেবার মৌসুমের প্রথম ৯ ম্যাচেই জিতেছিল চেলসি, যে রেকর্ড এখনো অক্ষুণ্ন। পুরো মৌসুমে ১৯ প্রতিপক্ষের সবাইকে অন্তত একবার করে হলেও হারিয়েছে মরিনিওর দল, যা ইংলিশ লিগে প্রথম। শেষ পর্যন্ত ৯১ পয়েন্ট নিয়ে টানা দ্বিতীয় শিরোপাটি জেতে চেলসি।

ম্যানচেস্টার সিটি (২০১৭-১৮)

একক দাপটের দিক থেকে প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসের অন্যতম সেরা মৌসুম ছিল এটি, সম্ভবত সেরাও। ২০১৭-১৮ মৌসুমেই এক আসরের সর্বোচ্চ পয়েন্ট (১০০), সবচেয়ে বেশি জয় (৩২), টানা জয় (১৮), সবচেয়ে বেশি গোল (১০৬) এবং সবচেয়ে বড় গোল ব্যবধানের (‍+৭৯) রেকর্ড গড়েছিল সিটি। সেবার প্রথম ১৯ ম্যাচ শেষে ৫৫ পয়েন্ট ছিল পেপ গার্দিওলার দলের।

লিভারপুল (২০১৮-১৯)

আগের মৌসুমে শিরোপা জেতা ম্যানচেস্টার সিটিকে টপকে ১৯ ম্যাচ শেষে ৫১ পয়েন্ট তুলে নিয়েছিল লিভারপুল। তবে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল দ্বিতীয় ভাগে আর সমানতালে খেলতে পারেনি। জিততে পারেনি শিরোপাও। অবশ্য লিভারপুলের চেয়ে সিটির দুরন্ত পথচলার ভূমিকাই এ ক্ষেত্রে বেশি ছিল। টানা ১৪ ম্যাচ জিতে লিভারপুলকে টপকে যায় সিটি। তখন পর্যন্ত নিজেদের ক্লাব ইতিহাসের সর্বোচ্চ ৯৭ পয়েন্ট তুলেও লিভারপুলকে মৌসুম শেষ করতে হয় দ্বিতীয় হয়ে।

লিভারপুল (২০১৯-২০)

২০১৮-১৯ মৌসুমে লিগ শিরোপা জিততে না পারলেও চ্যাম্পিয়নস লিগ ঘরে তোলে লিভারপুল। সেই সাফল্যের ধারা তারা ২০১৯-২০ মৌসুমের লিগেও টেনে আনে। এবার প্রথম ১৯ ম্যাচে তুলে নেয় ৫৫ পয়েন্ট। শেষ পর্যন্ত ৯৯ পয়েন্ট নিয়ে ৩০ বছর পর ইংলিশ লিগের শিরোপা জয় করে। এই আসরে ক্লপের দল প্রথম ২৭ ম্যাচ ছিল অপরাজিত (২৬ জয়, ১ ড্র)। এ ছাড়া ম্যানচেস্টার সিটির গড়া কিছু রেকর্ডেও ভাগ বসায়। যার মধ্যে ছিল বেশি জয় (৩২) এবং টানা জয় (১৮)।