ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই লিভারপুল ডিফেন্ডার জো গোমেজের ভুল ব্যাকপাসের সুযোগ নিয়ে লিডসকে এগিয়ে দেন রদ্রিগো। সেটা অবশ্য কিছুক্ষণ পরই শোধ করে দেয় লিভারপুল। মো সালাহ ১-১ করেন ম্যাচের ১৪ মিনিটে।

প্রথমার্ধে দুই দলই আরও সুযোগ নষ্ট করেছে। দ্বিতীয়ার্ধে লিভারপুলই বেশি সুযোগ পেয়েছে। কিন্তু সামনে দেয়াল হয়ে দাড়িয়েছেন লিডস গোলরক্ষক ইলান মেসলিয়ার। লিভারপুলের হতাশা আরও বাড়িয়ে ম্যাচের ৮৯ মিনিটে গোল করে বসেন লিডস ফরোয়ার্ড ক্রিসেনসিও সামারভিল।

২০২১ সালের মার্চের পর এই প্রথম অ্যানফিল্ডে লিগের কোনো ম্যাচ হারল লিভারপুল। মাঝের ২৯ ম্যাচে তারা জিতেছে ২২টি, ড্র করেছে ৭টি।