ম্যাচ শেষে রোনালদোর বিস্ফোরক সাক্ষাৎকারটি নিয়ে জিজ্ঞেস করা হলে উত্তর দিতে রাজি হননি ফার্নান্দেজ। ‘আমি সাক্ষাৎকারটি পড়ে দেখিনি’ বলে এড়িয়ে যান। সামনে বিশ্বকাপ, ফার্নান্দেজ মনোযোগটা সেখানেই রাখতে চান, ‘এখন আমরা জাতীয় দলে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড নিয়ে মনোযোগ দেব বিশ্বকাপ শেষে, ১৮ ডিসেম্বরের ফাইনালের পর।’

আগে কখনো ফাইনালে না খেললেও কাতার বিশ্বকাপে অন্যতম ফেবারিট ভাবা হচ্ছে পর্তুগালকে। ম্যানচেস্টার সিটির বের্নার্দো সিলভা, জোয়াও কানসেলো, রুবেন দিয়াজ; ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফার্নান্দেজ ও এসি মিলানের রাফায়েল লিয়াওদের নিয়ে বেশ সমীহজাগানিয়া স্কোয়াড আছে এবার। এ ছাড়া পঞ্চমবার বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া রোনালদোর অভিজ্ঞতা তো আছেই।

বয়স ৩৭ পার করে ফেলা রোনালদো এবারই হয়তো শেষ বিশ্বকাপ খেলছেন। পাঁচবারের ব্যালন ডি’অরজয়ীর সম্ভাব্য সর্বশেষ বিশ্বকাপ রাঙিয়ে তুলতে চান ফার্নান্দেজরা, ‘বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ অনেক বেশি পাওয়া যায় না। ক্রিস্টিয়ানোর এটা পঞ্চম বিশ্বকাপ। সবাই এটির জন্য প্রস্তুত। দলের জন্য সর্বোচ্চটা দিতে চায়।’
২৪ নভেম্বর ঘানার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে পর্তুগালের বিশ্বকাপ অভিযান। ‘এইচ’ গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ উরুগুয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়া।