আক্রমণভাগে নেইমার ও রিচার্লিসনের দুই পাশে খেলবেন রাফিনিয়া ও ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। মিডফিল্ডার হিসেবে থাকবেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফ্রেদ এবং ওয়েস্ট হামের লুকাস পাকেতা। তবে পাকেতা কিছুটা সামনে থাকবেন। রক্ষণে থিয়াগো সিলভা ও মার্কিনিওস থাকবেন মাঝখানে, দুই পাশে দানিলো এবং অ্যালেক্স সান্দ্রো। আর গোলপোস্টের নিচে অ্যালিসন।

শুরুর একাদশ এভাবে সাজিয়ে সোম ও মঙ্গলবার ‘ক্লোজড-ডোরে’ অনুশীলন করেছে ব্রাজিল। আক্রমণভাগে অতি মনোযোগী হতে গিয়ে মিডফিল্ডে খেলোয়াড় কমিয়ে ফেলার এই একাদশকে ‘নজিরবিহীন’ বলে উল্লেখ করেছে গ্লোবো।
এখন দেখার বিষয়, ‘ফাঁস’ হওয়া দলটিই কি প্রথম ম্যাচের শুরুর একাদশে থাকছে কি না।

ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জয়ের অভিযানে আসা ব্রাজিল সার্বিয়ার বিপক্ষে খেলবে আগামীকাল বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। ‘জি’ গ্রুপে নেইমারদের অপর দুই প্রতিপক্ষ ক্যামেরুন এবং সুইজারল্যান্ড।