default-image

থাইল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতিতে ছিলেন না রোনালদো। ‘পারিবারিক অসুবিধা’র কথা জানিয়ে তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। তবে তিনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে থাকতে চান না, এমন গুঞ্জন আগেই ডালপালা মেলেছিল। গত দুই সপ্তাহ ধরে রোনালদোর সম্ভাব্য গন্তব্য নিয়েও অনেক খবর বেরিয়েছে। পিএসজি, বায়ার্ন মিউনিখ ও চেলসির সঙ্গে জড়িয়েছে রোনালদোর নাম। তবে কোনো ক্লাবই রোনালদোকে দলে ভেড়াতে রাজি হয়নি। সবশেষ আতলেতিকো মাদ্রিদে যাওয়ার কথাও উঠেছিল। কিন্তু, মাদ্রিদের অপর প্রান্তে নাকি সমর্থকদের মধ্যে চলছে রোনালদো-বিরোধী প্রচারণা। এই অবস্থায় রোনালদোকে বোধ হয় আতলেতিকোর কথাও মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতে হচ্ছে।

সোমবার সন্ধ্যায় পর্তুগাল থেকে ম্যানচেস্টারে এসে পৌঁছান রোনালদো। সঙ্গে ছিলেন তাঁর এজেন্ট জর্জ মেন্ডেস। মঙ্গলবার টেন হাগ ও ফার্গুসনের সঙ্গে রোনালদোর সঙ্গে আলোচনায় থাকবেন ক্লাবের প্রধান নির্বাহী রিচার্ড আরনল্ড।

default-image

কেরিংটনের এ মৌসুমে এই প্রথমবারের মতো এসেছেন রোনালদো। আলোচনায় কোচ টেন হাগ কিংবা আরনল্ড থাকতে পারেন, কিন্তু স্যার ফার্গুসনের থাকাটা বিশেষ গুরুত্ব বহন করছে। ছয় বছর ফার্গুসনের অধীনেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলেছিলেন রোনালদো। তাঁর ক্যারিয়ারের উন্নতিতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই সাবেক কিংবদন্তি কোচের বড় ভূমিকা। রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাস ঘুরে গত মৌসুমে রোনালদোর আবারও ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে যোগ ফিরে আসার পেছনে ফার্গুসনের বড় ভূমিকা ছিল।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন