আর্জেন্টিনার খেলা শুরুর আগে কি ভেবেছিলেন সৌদি আরব এমন কিছু ঘটাতে পারে?

তপু: কখনোই না। তবে অফসাইডেই আর্জেন্টিনার তিনটি গোল বাতিল হয়েছে। যে কারণে ওরা মানসিকভাবে পিছিয়ে পড়ে। সৌদি আরবও জয়ের ব্যাপারে মরিয়া ছিল। ওরা পুরো ৯০ মিনিট একই ছন্দে খেলেছে। আর্জেন্টিনা পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে পরপর দুই গোল খেয়ে চাপে পড়ে যায়।

হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হলো আর্জেন্টিনার। লিওনেল মেসিদের শেষ ষোলোতে যাওয়ার সম্ভাবনা কতটুকু দেখছেন?

তপু: আমি এখনো আশাবাদী। প্রথম ম্যাচ হেরে ঘুরে দাঁড়ানোর অনেক ইতিহাস আছে। স্পেন ২০১০ সালে হার দিয়ে শুরু করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। ২০০৬ সালের জার্মানি বিশ্বকাপে ইতালি খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে ফাইনালে উঠে শেষ পর্যন্ত চ্যাম্পিয়ন হয়। আর্জেন্টিনার সমর্থক হিসেবে আশা, ওরা ফাইনালে খেলবে।

আপনার বিশ্বকাপ ফুটবল দেখার প্রথম স্মৃতি কি মনে পড়ে?

তপু: ২০০২ বিশ্বকাপের কথা ভালোভাবে মনে আছে। সেবার জার্মানিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ব্রাজিল। ফাইনালে রোনালদো অসাধারণ দুটি গোল করেছিলেন। ওই বিশ্বকাপ জেতার পর আমাদের পাড়ার ব্রাজিলের সমর্থকেরা মিছিল বের করে। আমরা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখেছিলাম। সেদিন খুব খারাপ লেগেছিল।

ছোটবেলায় কোন ফুটবলারের খেলা ভালো লাগত?

তপু: শুরুতে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার ভক্ত ছিলাম। আসলে বাতিস্তুতা, হুয়ান সেবাস্তিয়ান ভেরন, ক্লদিও ক্যানিজিয়া, হুয়ান রিকেলমেদের খেলা দেখেই আমি আর্জেন্টিনার ভক্ত হয়ে যাই। যখন খেলা শুরু করি, তখন থেকে সের্হিও রামোসকে ভালো লাগে।

এবার কারা চ্যাম্পিয়ন হতে পারে?

তপু: ইংল্যান্ড, ব্রাজিল, ফ্রান্স, আর্জেন্টিনার যে কেউ চ্যাম্পিয়ন হতে পারে।

সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার কে জিতবে বলে মনে হয়?

তপু: ইংল্যান্ডের বুকায়ো সাকা এরই মধ্যে ২ গোল করেছে। আজ (কাল) লিওনেল মেসির সুযোগ ছিল। কিন্তু সে জ্বলে উঠতে পারেনি। তারপরও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, নেইমার, হ্যারি কেইনদের কেউ গোল্ডেন বুট জিততে পারে।

আর সেরা খেলোয়াড়?

তপু: পর্তুগাল ফাইনালে উঠলে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো হতে পারে সেরা খেলোয়াড়। মেসি, বেলজিয়ামের কেভিন ডি ব্রুইনা বা ইংল্যান্ডের হ্যারি কেইনও হতে পারে।