নিলাম অনুষ্ঠান শুরুর আগে ম্যারাডোনার ‘হ্যান্ড অব গড’ গোলটি নিয়ে কথা বলেন বেননাসের। কেন সেদিন হ্যান্ডবল না দিয়ে গোলের বাঁশি বাজিয়েছিলেন, সেই ব্যখ্যায় তিউনিসিয়ান এ রেফারি বলেন, ‘তখন ইংল্যান্ডের কয়েকজন ফুটবলার সামনে থাকায় আমি দেখতে পাচ্ছিলাম না। ভালোভাবে দেখার অবস্থায় ছিল লাইন্সম্যান ডোতচেভ।

বল জালে ঢোকার পর আমি ওর দিকে তাকিয়েছিলাম। কিন্তু গোল বাতিলের কোনো নির্দেশনা সে দেয়নি।’ ম্যাচের শেষে ইংল্যান্ড কোচ ববি রবসন বেননাসেরকে দায়মুক্তি দিয়েছেন জানিয়ে ৭৮ বছর বয়সী এই রেফারি বলেন, ‘ববি বলেছিলেন, তুমি ভালোভাবেই ম্যাচ পরিচালনা করেছ। দায়টা লাইন্সম্যানের।’

হ্যান্ড অব গড গোলের কিছুক্ষণ পর আরেকটি গোল করেন ম্যারাডোনা, যা ২০০২ সালে বিংশ শতাব্দীর সেরা গোলের স্বীকৃতি পায়। ম্যারাডোনার ওই দুই গোলের সুবাদে আর্জেন্টিনা সেদিন ২–১ ব্যবধানে জিতে সেমিফাইনালে ওঠে। শেষ পর্যন্ত জার্মানিকে হারিয়ে ট্রফিও হাতে তোলে।

বহুল আলোচিত সেই ম্যাচের বলের তুলনায় ম্যারাডোনার জার্সি অবশ্য অনেক বেশি দামে বিক্রি হয়েছিল। এ বছরের মে মাসে নিলামে ৯২ লাখ ডলারে বিক্রি হয়েছিল জার্সিটি, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৮০ কোটি টাকার বেশি ছিল।