এখন লেভানডফস্কি যাওয়ার কারণে যদি শিরোপা জিততে সমস্যা হয়? সে কারণে ফার্গুসনের উক্তিকে মাথায় রেখেই কিনা, লেভানডফস্কি যাওয়ার পর রক্ষণভাগ আরও শক্তিশালী করার দিকে মনোযোগ দিচ্ছে বায়ার্ন। সাত কোটি ইউরোর বিনিময়ে জুভেন্টাস থেকে ডাচ সেন্টারব্যাক ম্যাটাইস ডে লিখটকে দলে আনছে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।

আপাতত জুভেন্টাসকে সাত কোটি ইউরো দিচ্ছে বায়ার্ন, পারফরম্যান্স–বিষয়ক বিভিন্ন বেতন-বোনাস মিলিয়ে ডি লিখট বাবদ আরও এক কোটি ইউরো আয় করার সুযোগ থাকছে জুভেন্টাসের সামনে। ২০২৭ সাল পর্যন্ত বায়ার্নের সঙ্গে চুক্তি করছেন ২২ বছর বয়সী এই সেন্টারব্যাক।

default-image

দায়োত উপামেকানো, লুকাস হার্নান্দেজ, বেঞ্জামিন পাভার ও তাঙ্গি কুয়াসির মতো প্রতিভাবান ফরাসি ডিফেন্ডার থাকার পরেও ডি লিখটের বায়ার্নে যাওয়া প্রশ্ন তুলছে, বায়ার্ন কি কোনো সেন্টারব্যাককে বিক্রি করতে চাইছে? ইউরোপীয় গণমাধ্যমগুলোর ধারণা, যেকোনো একজনকে বিক্রি করে দিতে পারে বায়ার্ন। রাইটব্যাক ও সেন্টারব্যাক দুই ভূমিকায় খেলতে পারেন বলে চেলসি পাভারের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল।

আয়াক্সে আলো ছড়ানোর পর ২০১৯ সালে সাড়ে সাত কোটি ইউরোর বিনিময়ে জুভেন্টাসে নাম লেখান ডি লিখট। আরও বিভিন্ন বোনাস বাবদ ডি লিখট বাবদ এক কোটি ইউরো আয় করে আয়াক্স। ডি লিখট যখন আয়াক্সে ছিলেন, তখন থেকেই তাঁকে দলে টানার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছিলেন বায়ার্নের ক্রীড়া পরিচালক হাসান সালিহামিদিচ—জানিয়েছে স্পোর্ত। তিন বছর পর সে স্বপ্নটাই সত্য হচ্ছে বায়ার্নের।

জুভেন্টাসের হয়ে তিন বছরে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১১৭ ম্যাচ খেলেছেন ডি লিখট, গোল করেছেন আটটি। নেদারল্যান্ডসের হয়ে ৩৮ ম্যাচ খেলে দুই গোল করেছেন এই সেন্টারব্যাক।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন