আগের ম্যাচটায় একের পর এক গোলের সুযোগ নষ্ট করেছেন শেখ মোরছালিন, রাকিব হোসেনরা। বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় গত রোববার আফগানিস্তানের বিপক্ষে সেই ম্যাচে তাই ভালো খেলেও গোলশূন্য ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে বাংলাদেশকে। একই দলের বিপক্ষে আজ দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচে তাই ভুল শোধরানোর লক্ষ্য হাভিয়ের কাবরেরার দলের।

কোচ কাবরেরা গত ম্যাচের সংবাদ সম্মেলনে মোরছালিন-রাকিবদের গোল মিসকে খুব বড় করে দেখেননি। উল্টো বলেছিলেন, প্রস্তুতি ম্যাচে গোল মিস নাকি তাঁর দৃষ্টিতে ভালো, ভুল শুধরে আসল ম্যাচে গোল পাবেন তাঁরা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এই দুই আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচকে ‘প্রস্তুতি’ হিসেবেই দেখছেন বাংলাদেশের স্প্যানিশ কোচ। তাঁর দৃষ্টিতে আসল ম্যাচ অক্টোবরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রাথমিক রাউন্ডে মালদ্বীপের বিপক্ষে।

আরও পড়ুন

গোল মিসের মহড়ায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে ড্র বাংলাদেশের

তাই বলে এভাবে জয়ের সুযোগ নষ্ট করাও ভালো কথা নয়। বাংলাদেশ দলের সহকারী কোচ হাসান আল মামুন কিন্তু আজ আবার আফগানদের মুখোমুখি হওয়ার আগে সে কথাই মনে করিয়ে দিয়েছেন খেলোয়াড়দের, ‘এ ম্যাচে প্রথম ম্যাচের মতো ভুল করা যাবে না। মোরছালিন-রাকিবরা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছে তারা সেদিন কী ভুল করেছিল। আমরা জিততে চাই। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পেলে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মালদ্বীপের বিপক্ষে বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামতে পারব।’

মোরছালিন-রাকিবদের গোল মিসকে খুব বড় করে দেখেননি কোচ
ছবি: শামসুল হক

আফগানিস্তান দলে আজকের ম্যাচে দু-একটি বদল হতে পারে। ইউরোপভিত্তিক কয়েকজন খেলোয়াড় ঢুকতে পারেন দলে। কোচ আবদুল্লাহ আল মুতাইরি অবশ্য এই পরিবর্তনকে খুব বড় করে দেখতে চান না। গত ম্যাচ শেষেই সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছিলেন, ‘আফগানিস্তানের জার্সি গায়ে যারাই খেলবে, আমার চোখে তারা সবাই সমান।’

বাংলাদেশ দলের সহকারী কোচ হাসান আল মামুন আগের ম্যাচের ভুলগুলোর পুনরাবৃত্তি রোধের ওপর জোর দিয়েছেন, ‘এ ম্যাচে প্রথম ম্যাচের ভুল করা যাবে না। প্রাপ্ত সুযোগগুলো কাজে লাগাতে হবে। মোরছালিন-রাকিবরা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছে, তারা কী কী ভুল করেছে। আমরা একটা নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে খেলছি ধারাবাহিকভাবে। এভাবেই দ্বিতীয় ম্যাচটা খেলতে হবে। আমরা জিততে চাই। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পেলে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মালদ্বীপের বিপক্ষে বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামতে পারব।’

আরও পড়ুন

মোস্তফার রিকশায় স্মৃতির ফুটবল