প্রত্যেকের পেছনে বেশ ভালোই খরচ হয়েছে। রাফিনিয়ার জন্য বার্সার খরচ ৬ কোটি ৮০ লাখ ইউরো। আর লেভানডফস্কির জন্য খরচ হয়েছে ৫ কোটি ইউরো। কুন্দের দামও একই।

এত খরচ করার পর এবার বার্সেলোনার চোখ পড়েছে ম্যানচেস্টার সিটির পর্তুগিজ মিডফিল্ডার বের্নার্দো সিলভার দিকে। মুন্দো দেপোর্তিভো ও আরএসিওয়ান স্পোর্তের নির্ভরযোগ্য সাংবাদিক ফেরান মার্তিনেজ দিয়েছেন এই খবর। আক্রমণ আর রক্ষণভাগ শক্তিশালী করার পাশাপাশি মাঝমাঠেও একজন নতুন খেলোয়াড় আনার চেষ্টা জাভির বহুদিনের।

default-image

সে লক্ষ্যেই বের্নার্দোর দিকে চোখ পড়েছে তাঁর। বার্সার এই কোচ মনে করেন, বুসকেতসের সঙ্গে পেদ্রি-বের্নার্দোর জুটি বেশ জমবে। জাভি যে আরও খেলোয়াড় চান, সেটা দলের সভাপতি হোয়ান লাপোর্তার কথাতেই স্পষ্ট, ‘জাভি দলের শক্তি বাড়াতে আরও খেলোয়াড় চায়।’

তবে যাঁদের কেনা হয়েছে, তাঁদের নিবন্ধন করার আগপর্যন্ত অন্য কাউকে আনতে চাইছেন না লাপোর্তা, ‘এখন আমরা খেলোয়াড় নিবন্ধনের দিকে মনোযোগ দিচ্ছি, যাদের নতুন কেনা হয়েছে। যারা ক্লাবের পরিকল্পনায় নেই, তাঁদের বিক্রিরও চেষ্টা চলছে। দেখা যাক আমরা কী করতে পারি।’

ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার রাফিনিয়া ও পোলিশ স্ট্রাইকার লেভানডফস্কিকে কেনার ফল এরই মধ্যে পেতে শুরু করেছে বার্সা। প্রাক্‌-মৌসুম প্রস্তুতি ম্যাচগুলোয় উন্নতির স্পষ্ট ছাপ দেখা যাচ্ছে।

বের্নার্দো সিলভা এলে সে উন্নতি আরও বাড়বে, সে আশা বার্সার সমর্থকেরা করতেই পারেন!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন