ম্যাচের আগে জাতীয় সংগীতের আনুষ্ঠানিকতায় খলিফা স্টেডিয়ামে প্রথমে বেজে ওঠে ইংল্যান্ডের জাতীয় সংগীত। এরপর ইরানের সময় দলের ১১ ফুটবলারকে চুপ করে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। যদিও স্টেডিয়ামে ইরানের জাতীয় সংগীতের সুর বাজছিল তখন।

দুই মাস ধরে ইরানে সরকারবিরোধী আন্দোলন চলছে। নীতি পুলিশের হামলায় ২২ বছর বয়সী নারী মাসা আমিনি প্রথমে আহত ও পরে মৃত্যুবরণ করলে ইরানে সামাজিকভাবে প্রতিবাদ শুরু হয়। সেই প্রতিবাদই পরে পরিণত হয়ে সহিংসতায় রূপ নেয়। ইরানজুড়ে পুলিশের গুলিতে হতাহতের সংখ্যাও অনেক। হিজাব ঠিকমতো মাথায় না থাকার কারণে মাসা আমিনি ইরানের নীতি পুলিশের হাতে প্রহারের শিকার হয়েছিলেন।

১৯৭৯ সালে দেশটিতে ইসলামি বিপ্লব সংঘটিত হওয়ার পর এই প্রথম ইরান সরকার এমন প্রতিবাদ–বিক্ষোভের মুখে পড়েছে।