বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যেখানে আগের দুই ম্যাচে বাংলাদেশকে ৭-০ গোলে হারিয়েছিল কোরিয়া, সেখানে আজ পোস্টের নিচে দারুণ উজ্জ্বল বিপ্লব। বাংলাদেশের ম্যাচের স্কোরলাইনেও দেখা গেল বড় পরিবর্তন। লড়াকু এক ম্যাচে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে কোরিয়া।

বাংলাদেশের এমন স্কোরলাইনে বড় অবদান বিপ্লবের। বেশ কয়েকটি নিশ্চিত গোল বাঁচিয়েছেন তিনি। অসাধারণ পারফরম্যান্সের পুরস্কারও মিলেছে বিপ্লবের। আন্তর্জাতিক অভিষেক ম্যাচেই হয়েছেন ম্যাচসেরা।

default-image

প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন মেরিনার ইয়াংস ক্লাবের গোলরক্ষক বিপ্লব কোচ ইমান গোবিনাথান কৃষ্ণমূর্তির ২০ সদস্যের প্রাথমিক দলে ডাক পেয়েছেন প্রথমবার। বাংলাদেশ দলের প্রধান গোলরক্ষক অসীম গোপ প্রাথমিক দলে ডাক পেলেও শেষ পর্যন্ত চূড়ান্ত দলে জায়গা করে নিতে পারেননি। ঘরোয়া হকিতে এবারের মৌসুমে খেলতে পারেননি অসীম। মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি করলেও শেষ পর্যন্ত খেলা হয়নি।

কিন্তু ভারতের বিপক্ষে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে বিপ্লব নয়, খেলেছিলেন আবু সাইদ। তিনি বেশ কয়েকটি বাজে গোলও হজম করেন ওই ম্যাচে। এরপর কোচ আজ মাঠে নামান বিপ্লবকে। কোচের আস্থার প্রতিদান দিতে পেরে খুশি বিপ্লব, ‘এটা জাতীয় দলে আমার প্রথম ম্যাচ। প্রথম দিনই ম্যান অব দ্য ম্যাচ হতে পেরে ভালো লাগছে। কোচকে অনেক ধন্যবাদ যে আমাকে সুযোগ দিয়েছেন।’

ভারতের কাছে ৯ গোলে হারের পর দলকে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য অনুপ্রেরণা দেন কোচ গোবিনাথান। ম্যাচ শেষে সেটাই বলছিলেন বিপ্লব, ‘কোচ আমাদের বলেছেন, একটা ম্যাচ খারাপ গেছে সমস্যা নেই। এটা হকিতে হতেই পারে। কোরিয়া ম্যাচের আগে সবাইকে উজ্জীবিত করেন তিনি। প্রথম ম্যাচে খারাপ করার পর সবাই নেতিবাচক সমালোচনা করেছে। এ ম্যাচের আগে আমরা বেশ সতর্ক ছিলাম। কোরিয়ার ভিডিও দেখেছি। তাদের কীভাবে আটকানো যায়, তা নিয়ে কাজ করেছেন কোচিং স্টাফরা। কোচ আমাদের বলেছেন, তোমাদের ওপর আমার বিশ্বাস আছে, তোমরা পারবে।’

আগামীকাল বাংলাদেশ খেলবে জাপানের বিপক্ষে। এবার জাপানের বিপক্ষে ম্যাচেই সব মনোযোগ রাখতে চান বিপ্লব, ‘আমরা প্রতিটি ম্যাচ নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা করছি। প্রথম ম্যাচের আগে কেবল ভারতকে নিয়েই চিন্তা করেছি। পরের ম্যাচগুলো নিয়েও কোচ নিজের পরিকল্পনা দিচ্ছেন। সে অনুযায়ী আমরা পরের ম্যাচে খেলার চেষ্টা করব।’

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন