বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রশ্ন: আপনি কীভাবে আর্চারিতে এলেন? কোরিয়ায় তো ফুটবলই বেশি জনপ্রিয়...

লি: আমার প্রথম পছন্দ ছিল ফুটবল। শৈশবে ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন দেখতাম। কিন্তু ছোটবেলায় বাবা আমাকে যে স্কুলে ভর্তি করে দেন, ওই স্কুলে আর্চারি ছাড়া আর কোনো খেলাধুলা হতো না। বলতে পারেন একরকম বাধ্য হয়েই আর্চারি খেলা শুরু করি। এরপর খেলতে খেলতে এই খেলাটা ভালো লেগে গেল। তা ছাড়া আমার অন্য কোনো খেলা বেছে নেওয়ারও উপায় ছিল না। তাই আর্চারিতেই পুরো মনোযোগ দেওয়া শুরু করি।

প্রশ্ন: আপনার পরিবারের অন্য কেউ কি খেলাধুলা করেন?

লি: না, আমার বাবা কোরিয়ার একটি শহরে ফার্নিচার তৈরি করেন। বাবা চাইতেন যেন আমি খেলায় আসি এবং অবশ্যই অলিম্পিকে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করি। বাবার সেই স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে আমি গর্বিত।

default-image

প্রশ্ন: আপনি বলছিলেন, কোরিয়ায় অলিম্পিকের দলে সুযোগ পাওয়াটা অনেক কঠিন। একটু যদি ব্যাখ্যা করতেন?

লি: আমাদের দেশের আর্চারির র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ খেলোয়াড় থেকে পরের ৫০ জনের পারফরম্যান্স খুবই কাছাকাছি। বলা যায়, একে অন্যের ঘাড়ের ওপর নিশ্বাস ফেলে। প্রতিটি প্রতিযোগিতায় একজন আরেকজনকে তীব্র চ্যালেঞ্জ জানায়। আমাদের জাতীয় দল প্রতিনিয়ত বদল হচ্ছে। কেউই বলতে পারে না যে জাতীয় দলে তার জায়গা পাকা।

প্রশ্ন: কোরিয়ান আর্চারি দলের অনুশীলনের সুযোগ–সুবিধা কেমন?

লি: কোরিয়ার অন্যতম সেরা খেলা আর্চারি। আমাদের আর্চারি অ্যাসোসিয়েশন আধুনিক সব সুযোগ–সুবিধা দিচ্ছে খেলোয়াড়দের। আমি বলতে পারি, অন্যদের চেয়ে অবিশ্বাস্য রকম বেশি সুবিধা পাই আমরা। আর কোরিয়ায় অলিম্পিক সোনা জিতলে একজন খেলোয়াড় এক লাখ মার্কিন ডলার আর্থিক পুরস্কার পায়। এক লাখ ডলার আমিও পেয়েছি। তারপরও আর্চারি নিয়ে আমাদের দেশে খুব বেশি আলোচনা নেই।

default-image

প্রশ্ন: এর কারণ কী?

লি:  প্রথমত, টেলিভিশনে আর্চারি খেলা দেখায় না। তা ছাড়া কেউ সেভাবে দেখতেও চায় না। যখন অলিম্পিকে কেউ সোনা জেতে, তখনই তাকে নিয়ে মাতামাতি হয়। শুনে অবাক হবেন, আমাদের দেশে লোকে আর্চারিটা খুব বেশি পছন্দও করে না। কিন্তু তারপরও লোকে এই খেলাটা ভালোবাসে। কারণ, অলিম্পিকে এই খেলা থেকেই আমরা প্রচুর সোনা জিতি। কিন্তু সত্যি বলতে কী, ফুটবল আমাদের দেশে ভীষণ জনপ্রিয়।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের আর্চারি সম্পর্কে কোনো ধারণা আছে আপনার?

লি: খুব অল্প সময়ে বাংলাদেশ আর্চারিতে যথেষ্ট উন্নতি করেছে।

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন