বাংলাদেশ আর্চারি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজিব উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘শৃঙ্খলাজনিত কারণে কার্যনির্বাহী কমিটি রোমানের ব্যাপারে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী দুই বছর তাকে ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক সব রকমের প্রতিযোগিতা থেকে বিরত থাকতে হবে।’  

যদিও এই সময় চাইলে রোমান ব্যক্তিগতভাবে অনুশীলন চালিয়ে যেতে পারবেন। ক্যাম্পে থাকা অবস্থায় রোমান যে শৃঙ্খলা ভেঙেছেন, সেই প্রমাণের ভিডিও হাতে পেয়েছে ফেডারেশন। সেই ভিডিওর ভিত্তিতেই তাঁকে কারণ দর্শানোর চিঠি দেওয়া হয়।

রোমান নিজের ভুল স্বীকার করে বলেছেন, ‘দেশের একজন সেরা আর্চার হওয়ায় আমি যা করেছি, সেটা করা মোটেও ঠিক হয়নি। আমি নিজের ভুল বুঝতে পেরেছি। ভবিষ্যতে এমনটা হবে না মর্মে একটা চিঠিও দিয়েছি ফেডারেশনকে। আশা করি, আমি খুব দ্রুতই ক্যাম্পে ফিরে আসব।’

প্যারিস অলিম্পিকের জন্য এখন অনুশীলন করছিলেন রোমান। এই ঘটনায় মর্মাহত রোমান বলছিলেন, ‌‘কোচও ঘটনাটি শুনে অবাক হয়েছেন। সামনে অলিম্পিকের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে আমাকে। এই ঘটনাটা আমার মনোযোগ নষ্ট করে দিয়েছে। পুরো ঘটনার জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। আবারও মাঠে ফিরতে চাই আমি।’