প্রতিযোগিতায় ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে মেয়েদের সিনিয়র বিভাগে বাংলাদেশ অংশ নেয়নি। কারণ শুটারসংকট। সাজিদা যুব বিভাগে খেলেছেন, আরও দুজন পরীক্ষার কারণে দল ছেড়েছেন। ফলে ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে সিনিয়র বিভাগে দলই গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। তবে ব্যক্তিগত বিভাগে খেলেছে বাংলাদেশ।

এই বিভাগে বাংলাদেশের তরুণ শুটার কামরুন নাহার কলি চতুর্থ হয়েছেন। সাজিদা যুব বিভাগে ষষ্ঠ। ছেলেদের ১০ মিটার সিনিয়রে ব্যক্তিগত বিভাগে রাব্বি হাসান ৬২৯ করে ফাইনাল খেলে শেষ পর্যন্ত ষষ্ঠ হয়েছেন।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের শুটারদের যা ফলাফল, তাতে খুশি সাবেক শুটার শারমিন আক্তার (রত্না)। শুটারদের প্রশংসা করে তাঁর কথা, ‘এর আগে এশিয়ান পর্যায়ে দুবার সপ্তম হয় আবদুল্লাহ হেল বাকি। এবার কলি চতুর্থ হয়েছে। এশিয়ান পর্যায়ে সে ভালো স্কোর করেছে। রাব্বি খুবই ভালো স্কোর করে ফাইনালে উঠেছে। সাজিদার স্কোরও ভালো। তুলনামূলক উন্নতি হচ্ছে বাংলাদেশের ছেলেমেয়েদের।’