নয়জনের বিদায়ের পর টিকে ছিলেন শুধু ফেলিক্স অগার-আলিয়াসিম। ২২ বছর বয়সী কানাডিয়ান তরুণকে ‘নেটফ্লিক্স-কার্স’ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে হেসেই উড়িয়ে দিয়েছিলেন, ‘এটা মজার ব্যাপার। তবে আসলেই খেলোয়াড়দের ছিটকে যাওয়ার সঙ্গে নেটফ্লিক্সের কোনো সংযোগ নেই। হতে পারে কেউ কেউ মনে করছে সংযোগ আছে, এ কারণে হেরে যাচ্ছে। তবে আমার সেটা মনে হয় না।’

কিন্তু রোববার চেক প্রজাতন্ত্রের কাছে জিরি লেহেকার কাছে হেরে ফেলিক্সও বিদায় নেন।

এর আগে নিক কিরিওস, আলিয়া তমলিয়ানোভিচ ও পলা বাদোসা চোটের কারণে টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই ছিটকে পড়েন। এরপর একে একে বাদ পড়েছেন মাত্তেও বেরেত্তিনি, দ্বিতীয় বাছাই কাসপার রুড, টেলর ফ্রিটজ, থানাসি ককিনাকিস, মারিয়া সাক্কারি ও মেয়েদের বিভাগের দ্বিতীয় বাছাই উনস জাবিরও।

ব্রেক পয়েন্টের ১০ তারকার অর্ধেক বিদায় নেওয়ার পরই ‘কুফা’ শব্দটা ভেসে বেড়াতে থাকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। নেটফ্লিক্সকে তাই বাধ্য হয়ে টুইটে বলতে হলো পুরো ব্যাপারটাই কাকতালীয়।

যাঁরা, যেভাবে বাদ পড়েছেন

* অস্ট্রেলিয়ার নিক কিরিওস, আলিয়া তমলিয়ানোভিচ এবং ওয়ার্ল্ড নাম্বার সিক্সটিন পলা বাদোসা টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই নিজেদের সরিয়ে দেন
* ২০২১ উইম্বলডনের ফাইনালিস্ট ও ১৩তম বাছাই মাত্তেও বেরেত্তিনি বাদ পড়েন প্রথম রাউন্ডে অ্যান্ডি মারের কাছে হেরে
* অষ্টম বাছাই টেলর ফ্রিটজ দ্বিতীয় রাউন্ডে হেরে যান উইল্ডকার্ড নিয়ে আসা অ্যালেক্সি পপিরিনের কাছে
* সাবেক উইম্বলডন ও ইউএস ওপেন রানারআপ উনস জাবির র‍্যাঙ্কিংয়ের ৮৬তম স্থানে থাকা মার্কেতা ভোনড্রোসোভার কাছে দ্বিতীয় রাউন্ডে হারেন

* ছেলেদের দ্বিতীয় বাছাই কাসপার রুড দ্বিতীয় রাউন্ডে হারেন র‍্যাঙ্কিংয়ের ৩৯ নম্বরে থাকা জনসন ব্রুকসবির কাছে
* দ্বিতীয় রাউন্ডে অ্যান্ডি মারের বিপক্ষে প্রথম দুই সেটে এগিয়েও শেষ পর্যন্ত হেরে যান অস্ট্রেলিয়ার থানাসি ককিনাকিস
* মেয়েদের ষষ্ঠ বাছাই মারিয়া সাকারি তৃতীয় রাউন্ডে হারেন ৮৭তম র‍্যাঙ্কিংয়ের লিন জুর কাছে
* ছেলেদের ষষ্ঠ বাছাই ফেলিক্স অগার-আলিয়াসিম চতুর্থ রাউন্ডে হারেন ওয়ার্ল্ড নাম্বার ৭১ জিরি লেহেকার কাছে