টানা জয়ে কিংবদন্তি আগাসিকে ছুঁয়ে জোকোভিচ এখন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে দশম আর ক্যারিয়ারের ২২তম গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের অপেক্ষায়। সেই অপেক্ষা ঘোচাতে আর মাত্র দুটি ধাপ বাকি।

রুবেলেভকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ওঠার পর জোকোভিচ জানালেন, ‘প্রতিপক্ষদের জন্য বার্তা’ পাঠিয়েছেন তিনি। ৩৫ বছর বয়সী এই তারকা টুর্নামেন্টের প্রথম দিকের ম্যাচগুলোয় শারীরিকভাবে ভুগছিলেন। তবে চতুর্থ রাউন্ডে অ্যালেক্স ডি মিনাউরের পর এবার রুবলেভকে হারালেন দাপটের সঙ্গে।

শারীরিকভাবে শতভাগ ফিট না থাকলেও এমন দাপুটে খেলা নিয়ে জোকোভিচ বলেন, ‘গত দুই ম্যাচে দুজন ছন্দে থাকা খেলোয়াড়ের বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করে তিন সেটেই জিতলাম। আমি এই মুহূর্তই চাইছিলাম। এর মাধ্যমে আমি আমার প্রতিপক্ষদের প্রতি বার্তাও পাঠালাম।’

এ ধরনের খেলা নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তোলে জানিয়ে সার্বিয়া তারকা বলেন, সেমিফাইনালের বাধা পার হয়ে ফাইনালেও খেলতে পারবেন বলে তিনি আশাবাদী, ‘ক্যারিয়ারে অনেকবারই এ ধরনের পরিস্থিতিতে পড়েছি। আমি কখনো অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে হারিনি। আশা করি, এবারও তেমনটিই ঘটবে।’

শুক্রবার গ্র্যান্ড স্লাম ক্যারিয়ারের ৪৪তম সেমিফাইনাল খেলবেন জোকোভিচ, যা তাঁকে ৪৬টি সেমিফাইনাল খেলা রজার ফেদেরারের খুব কাছে নিয়ে যাবে। সেমিফাইনালের প্রতিপক্ষ পলের সঙ্গে এটি তাঁর প্রথম মুখোমুখি লড়াই।