পুরস্কার মঞ্চে আবারও উঠতে পেরে উচ্ছ্বসিত অভিক আনোয়ার। মালয়েশিয়া থেকে হোয়াটসঅ্যাপে আজ প্রথম আলোকে বলেন, ‘এখানে প্রচুর গরম, একেবারে বাংলাদেশের মতো। টায়ারের ভারসাম্য নিয়ন্ত্রণ করে গাড়ি চালানো খুব কঠিন ছিল। শেষ পর্যন্ত আমি পুরস্কার মঞ্চে উঠতে পেরে খুব খুশি।’

বাংলাদেশি মোটর রেসারদের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খুব বেশি মূল্যায়ন করতে চান না কেউ। সেই আক্ষেপ থেকেই তাঁর কথা, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসে যেভাবে অনুশীলন করি, রেসে অংশ নিই সেটা খুব কঠিন ও চ্যালেঞ্জের।

default-image

যখন মঞ্চে পুরস্কার নিতে আমার নাম ডাকা হয়, তখন বাংলাদেশ শুনে অনেকে বাঁকা চোখে তাকান। আমি এই রেসে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বাংলাদেশের পতাকা আরও উঁচুতে তুলে ধরতে চাই।’

মালয়েশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ সিরিজ হচ্ছে মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল রেসিং সিরিজ। এই চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজক মালয়েশিয়ার সেপাং ইন্টারন্যাশনাল সার্কিট। সিরিজে চার রাউন্ডে অংশ নিতে হয় প্রত্যেক মোটর রেসারকে।

প্রতি রাউন্ডে দুবার করে রেস করতে হয়। অংশ নিচ্ছেন মালয়েশিয়া, জাপান, ইন্দোনেশিয়া, সিঙ্গাপুর, জার্মানি ও বাংলাদেশের ৪৩ জন মোটর রেসার।

default-image

গত ১৯ মে প্রথম রাউন্ডে অভিক রেস ওয়ানে হয়েছিলেন চতুর্থ, রেস টুতে হন প্রথম। ১৯ জুন দ্বিতীয় রাউন্ডের রেস ওয়ানে গাড়ির রেডিয়েটর বিস্ফোরণের কারণে রেস শেষ করতে পারেননি। তবে রেস টুতে পেছন থেকে শুরু করেও তৃতীয় হয়ে যান।

আগামীকাল রোববার তৃতীয় রাউন্ডের রেস টু হবে এবং তাতে অভিক অংশ নেবেন।
তৃতীয় রাউন্ডের রেস ওয়ান শেষে তৃতীয় স্থানে আছেন অভিক। তিনি যে গাড়িটি নিয়ে রেস করেছেন সেটি হোন্ডা সিভিক ১৫০০ সিসি টার্বো। রেস করছেন মালয়েশিয়ার আর ইঞ্জিনিয়ারিং দলের হয়ে। এই দলের স্পনসর হোন্ডা মালয়েশিয়া রেসিং টিম।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন