২. ইউটিউবের কমিউনিটি নীতিমালা মেনে ভিডিও প্রকাশ করতে হবে। অন্যথায় ভিডিওতে কমিউনিটি স্ট্রাইক পড়তে পারে। স্প্যাম কিংবা প্রতারণামূলক তথ্য, স্পর্শকাতর বিষয়, ধ্বংসাত্মক ও ভয়ংকর বিষয়, ভুল তথ্যসংবলিত কনটেন্ট ইউটিউবে দেওয়া যাবে না।

৩. চ্যানেলে কমপক্ষে এক হাজার গ্রাহক বা সাবস্ক্রাইবার থাকতে হবে।

৪. বিগত এক বছরের মধ্যে কমপক্ষে চার হাজার ঘণ্টা ওয়াচ আওয়ার থাকতে হবে। অর্থাৎ আপনি যেদিন মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করবেন, সেদিন থেকে আগের এক বছরের মধ্যে আপনার চ্যানেলে থাকা ভিডিওগুলো দেখার সময় কমপক্ষে চার হাজার ঘণ্টা হতে হবে।

৫. চ্যানেলে দুই স্তরের যাচাইকরণ সুবিধা চালু করতে হবে। এ জন্য ক্রিয়েটর স্টুডিওতে প্রবেশের পর চ্যানেল অপশনে ক্লিক করে ফিচার ইলিজিবিলিটি থেকে অ্যাডভান্স ফিচার অপশন চালু করলেই চ্যানেলটি মনিটাইজেশনের জন্য যোগ্য হবে।

৬.মনিটাইজেশন আবেদনের আগে গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। তবে চাইলে আগে থেকে চালু থাকা গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্টের সঙ্গে চ্যানেলটি যুক্ত করা যাবে। আবেদনের পর নতুন অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য সাত দিনের মতো সময় লাগতে পারে।

৭.অ্যাডসেন্স চালুর পর চ্যানেলের আয় শুরু হবে। ১০ ডলার অ্যাডসেন্সে জমা হওয়ার পর গুগল আপনার দেওয়া ঠিকানায় পিন যাচাইয়ের কোড পাঠাবে। কোডটি দিয়ে অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট যাচাই করতে হবে।

৮. অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্টে ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য লিখতে হবে। আয়ের পরিমাণ ১০০ ডলারের বেশি হলে প্রতি মাসে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাবে গুগল।