ফেসবুক প্রোফাইলের কোন তথ্য অপরিচিত ব্যক্তিরা সার্চ করলে দেখতে পারবেন, তা আগে থেকেই নির্দিষ্ট করে দিতে হবে। এ জন্য সেটিংসে প্রবেশ করে ম্যানেজ ইউর প্রোফাইল অপশন থেকে নিজের প্রোফাইলে থাকা গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলোতে অনলি মি অপশন ব্যবহার করতে হবে।

অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখতে অবশ্যই দুই স্তরের নিরাপত্তা-সুবিধা ব্যবহার করতে হবে। ফেসবুকে লগইন করার সময় ব্যবহারকারীর পরিচয় শনাক্তে দুই স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা খুবই কার্যকর। ফেসবুকের সেটিংসে থাকা সিকিউরিটি অ্যান্ড লগইন অপশনে ক্লিক করলেই ডান পাশের নিচে টু ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন সুবিধা দেখা যাবে।

লগইন অ্যালার্ট সুবিধা ব্যবহার করতে হবে। এই সুবিধা চালু থাকলে অন্য কোনো যন্ত্র থেকে কোনো ব্যক্তি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করার চেষ্টা করলে সতর্কবার্তা পাঠাবে ফেসবুক। ফলে দ্রুত ফেসবুকের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন বা অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া যাবে।

বন্ধু নির্বাচনে সতর্কতা। অপরিচিত কোনো ব্যক্তিকে ফেসবুকের বন্ধু তালিকায় না রাখাই ভালো। এর ফলে অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা সমস্যা হওয়ার পাশাপাশি আপনার বিভিন্ন তথ্য অপরিচিতদের কাছে চলে যায়।