আজ মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ বলেন, ‘সারা দেশের উদ্ভাবনী ও সম্ভাবনাময় তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য ও সেবাগুলোকে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বাছাই করতে এ পুরস্কার দিয়ে থাকে বেসিস। অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসের মতো আন্তর্জাতিক আসরে আমাদের সক্ষমতা জানান দেওয়ার সুযোগ করে দেবে এ আয়োজন। বিজয়ী প্রকল্পগুলো বরাবরের মতো আন্তর্জাতিক আসরে দেশের জন্য গৌরব বয়ে আনবে বলে আশা করা হচ্ছে। এবারের আয়োজনে ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখা প্রকল্পগুলোকে বিশেষভাবে বিবেচনা করা হবে।’

বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডসের আহ্বায়ক ও বেসিস অ্যাডভাইজারি স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি এম রাশিদুল হাসান বলেন, এবারের আয়োজনে ৩৬ ক্যাটাগরিতে ৩টি করে মোট ১০৮টি প্রকল্পকে পুরস্কার দেওয়া হবে। বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডসে প্রধান বিচারকের দায়িত্ব পালন করবেন বেসিস প্রেসিডেন্টস অ্যাডভাইজারি কমিটির সদস্য আবদুল্লাহ এইচ কাফি।

আগামী ২ অক্টোবর পর্যন্ত https://bnia.basis.org.bd/ ঠিকানায় পুরস্কারের জন্য আবেদন করা যাবে। বেসিস সদস্যদের পাশাপাশি যেকোনো প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি নিজেদের প্রকল্প অনলাইনে জমা দিয়ে আবেদন করতে পারবে।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন