এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে হুয়াওয়ে জানায়, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর প্রশিক্ষণকেন্দ্রটিতে শিক্ষার্থীরা হালনাগাদ প্রযুক্তি বিষয়ে প্রশিক্ষণের পাশাপাশি সেগুলো ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। হুয়াওয়ের নিজস্ব আই-লার্নিং প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে কুয়েট শিক্ষার্থীদের এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। শিক্ষকদেরও হুয়াওয়ের সার্টিফাইড ট্রেইনার হিসেবে গড়ে তুলবে এ আইসিটি একাডেমি।

এ বিষয়ে কুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিকস প্রকৌশল অনুষদের ডিন কে এম আজহারুল হাসান বলেন, হুয়াওয়ে কুয়েট আইসিটি একাডেমি শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধি করতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে ও জ্ঞান অর্জনের নতুন দিক উন্মোচন করবে।
হুয়াওয়ে টেকনোলজিস বাংলাদেশের এন্টারপ্রাইজ বিজনেস গ্রুপের প্রধান জর্জ লিন বলেন, বাংলাদেশের মেধাবী তরুণদের আইসিটিতে দক্ষ করে তুলতে সরকারসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কাজ করছে হুয়াওয়ে। ভবিষ্যতের জন্য তরুণ প্রজন্মকে প্রস্তুত করতেই এ আইসিটি একাডেমি চালু করা হবে।

বর্তমানে ৯০টিরও বেশি দেশে প্রায় দেড় হাজার আইসিটি একাডেমি রয়েছে হুয়াওয়ের। গত মার্চ মাসে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) আইসিটি একাডেমি চালু করেছে হুয়াওয়ে।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন