default-image

করোনার নকল টিকা বাজারে বিক্রি হতে পারে অথবা আসল টিকা চুরি হয়ে যেতে পারে বলে সতর্কতা জারি করেছে ইন্টারপোল। ফ্রান্সভিত্তিক পুলিশের এই আন্তর্জাতিক সংস্থাটি গত বুধবার নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বার্তায় বিশ্বব্যাপী এ সতর্কতা জারি করেছে।

বিশ্বের বিভিন্ন পুলিশ বাহিনীর মধ্যকার সমন্বয়ক সংস্থা হলো ইন্টারপোল। সংস্থাটির সতর্কতা বার্তায় বলা হয়েছে, ১৯৪টি সদস্যদেশের পুলিশ বাহিনীকে এ বিষয়ে অরেঞ্জ অ্যালার্ট দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, সংঘবদ্ধ একটি চক্র নকল টিকা বাজারে ও অনলাইন মাধ্যমে বিক্রির চেষ্টা করতে পারে।

সতর্কবার্তায় আরও বলা হয়, মহামারির কারণে এরই মধ্যে বেশ ‘সুযোগসন্ধানী ও অপরাধপ্রবণ’ আচরণ দৃশ্যমান হয়েছে। অপরাধপ্রবণতাও বেড়েছে। আর এসবের পেছনে রয়েছে করোনার নকল টিকা প্রস্তুত করা ও আসল টিকা চুরির আশঙ্কা।

ইন্টারপোল বলেছে, এ ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সমন্বয়ের প্রয়োজন আছে। যেহেতু করোনার টিকার অনুমোদন ও তা জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়ার প্রক্রিয়া নিকটবর্তী, তাই টিকার সরবরাহ নিরাপদ করার প্রয়োজনীয়তা তীব্র হয়ে উঠছে। সেই সঙ্গে টিকা বিক্রির ক্ষেত্রে অবৈধ ওয়েবসাইটের ব্যবহার চিহ্নিত করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

ইন্টারপোলের সতর্কবার্তায় আরও বলা হয়েছে, বিভিন্ন দেশের সরকারগুলো ধীরে ধীরে গণটিকাদান কর্মসূচির দিকে এগোনোর চিন্তাভাবনা করছে। এখন অপরাধী চক্রগুলো টিকার সরবরাহকে বিনষ্ট করার চেষ্টা করতে পারে। ভুয়া ওয়েবসাইটে টিকা বিক্রির চেষ্টাও হতে পারে। এতে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য, এমনকি জীবনও হুমকির মুখে পড়তে পারে।

ইন্টারপোলের মহাসচিব জুরগেন স্টক বলেন, করোনার টিকার সঙ্গে সম্পর্কিত সব ধরনের অপরাধমূলক কার্যক্রম ঠেকাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর যথাসম্ভব প্রস্তুত থাকার প্রয়োজন রয়েছে।

মন্তব্য করুন