বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইএমএর ভ্যাকসিন স্ট্র্যাটেজি বিভাগের প্রধান মার্কো কাভালেরি বলেন, ‘এ মুহূর্তে মনে হচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়নে অনুমোদন পাওয়া চারটি টিকাই ইউরোপে ছড়িয়ে পড়া ডেলটাসহ করোনার অন্যান্য ধরনের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দিচ্ছে।’

ইউরোপে ফাইজার, বায়োএনটেক, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা অনুমোদন পেয়েছে। মার্কো কাভালেরি আরও বলেন, ‘সারা বিশ্ব থেকে পাওয়া তথ্য থেকে দেখা গেছে, টিকার দুটি ডোজ ডেলটা ধরনের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয়।’

এ ছাড়া ‘ডেলটা প্লাস’সহ করোনার অন্য নতুন ধরনগুলোর বিরুদ্ধে টিকা কতটুকু কার্যকর, তা বের করতে টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

ল্যাবরেটরি পরীক্ষায় পাওয়া তথ্য থেকে দেখা গেছে, টিকাদানের ফলে শরীরে সৃষ্টি হওয়া অ্যান্টিবডি করোনার ডেলটা ধরনের সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে পারে। এ খবর ‘আশ্বাস দেওয়ার মতো’ বলে উল্লেখ করেন মার্কো কাভালেরি।

এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলো যখন টিকাদান কর্মসূচি আরও জোরেশোরে শুরু করেছে, তখন ডব্লিউএইচও আবার নতুন শঙ্কার কথাও তুলে ধরেছে। তারা বলছে, দুই মাস ধরে সংক্রমণের নিম্নগতি থাকার পর ইউরোপের দেশগুলোতে তা আবার ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে।

যুক্তরাজ্য থেকে ছড়িয়ে পড়া আলফা ধরনের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসার পর ইউরোপের দেশগুলোতে নতুন করে ডেলটার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। এ ধরনের কারণেই এখন সংক্রমণের এ ঊর্ধ্বগতি বলে জানিয়েছে ডব্লিউএইচও।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন