গিনেস কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি কলমটি নিয়ে বানানো একটি ভিডিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছে। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন মিলে বিশাল আকারের কলমটি তুলে ধরেছেন। লেখার চেষ্টা করছেন। এতে বলা হয়েছে, কলমটি দিয়ে লিখতে গেলে চার থেকে পাঁচজনের প্রয়োজন হয়।

ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। অনেকেই আচার্য শ্রীনিবাসের এমন উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন। তবে অনেকেই এই কলমের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, মজা করেছেন। একজন ভিডিওর নিচে মজা করে লিখেছেন, ‘কলমটি হয়তো হাল্কের ব্যবহারের জন্য বানানো হয়েছে।’

আচার্য শ্রীনিবাস সংবাদমাধ্যমকে জানান, ছোটবেলায় তাঁর মা তাঁকে একটি কলম উপহার দিয়েছিলেন। সেটি তাঁর ভীষণ পছন্দের ছিল।

তখন থেকেই তিনি ভিন্ন ধরনের কলম বানানোর চিন্তা করতেন। সেই চিন্তা বাস্তবায়ন করতে গিয়ে বানিয়ে ফেলেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় কলম, যা তাঁকে এনে দেয় বিশ্ব রেকর্ডের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন