বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রতিবছর আতশবাজির পাশাপাশি সিডনির অপেরা হাউস বিভিন্ন রঙের আলোকসজ্জায় সেজে ওঠে। এবারও নানান রঙে রেঙেছিল এই স্থাপনা। নতুন বছর শুরুর মুহূর্তে সিডনি বন্দরের ঐতিহ্যবাহী আতশবাজি সবার নজর কেড়েছে। নতুন বছরের প্রথম মুহূর্তে মেলবোর্নের আকাশও বর্ণিল আতশবাজিতে রঙিন হয়ে উঠেছিল।
তবে অমিক্রন সংক্রমণের ভয় থেকে যুক্তরাজ্যের লন্ডনের বিগ বেন, মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে পেট্রোনাস টুইন টাওয়ারসহ বিশ্বের বিভিন্ন শহরের আইকনিক স্থাপনাগুলোয় নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়ার আয়োজন সীমিত কিংবা বাতিল করা হয়েছে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের টাইমস স্কয়ারে প্রতিবারের মতো এবারও বসছে নতুন বছরের ক্ষণগণনার আয়োজন। তবে এই আয়োজনে জনসমাগম সীমিত থাকবে। সেখানে উপস্থিত হওয়া ব্যক্তিদের সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে এবং করোনার টিকার সনদ সঙ্গে রাখতে অনুরোধ করেছে শহর কর্তৃপক্ষ। ১৯০৪ সাল থেকে টাইমস স্কয়ারে বর্ষবিদায় ও নতুন বর্ষবরণের উদ্‌যাপন হয়ে আসছে।

অস্ট্রেলিয়া নতুন বর্ষ উদ্‌যাপনের আনন্দ করলেও এশিয়ার দেশগুলোয় অনুষ্ঠান সীমিত করা হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় মধ্যরাতে ঘণ্টা বাজানোর অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে। দেশটিতে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে দুই সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা দেশটির জনগণকে মাস্ক পরতে ও অনুষ্ঠান সীমিত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

default-image

অমিক্রনের সংক্রমণ প্রথম শনাক্ত হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকায়। নতুন বছর শুরুর আগেই দারুণ সুখবর শুনিয়েছে দেশটি। দক্ষিণ আফ্রিকায় অমিক্রনে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত কারও মৃত্যু হয়নি। এ খবর জানিয়ে দেশটির সরকার অমিক্রনের ঢেউ কাটিয়ে ওঠার ঘোষণা দিয়েছে। ফলে দক্ষিণ আফ্রিকাবাসীর কাছে ২০২২ সাল নতুন আশা নিয়ে এসেছে।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন