default-image

ইসরায়েলে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বাসভবনের বাইরে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন হাজার হাজার ইসরায়েলি নাগরিক। স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার নেতানিয়াহুর নীতি ও ক্ষমতা কুক্ষিগত করার বিরোধিতা করে তাঁরা বিক্ষোভ শুরু করেন। আজ রোববারও বিক্ষোভ চলছে।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সাধারণ নির্বাচনের দিন দু-এক আগে নেতানিয়াহুর বাসভবনের বাইরে বিক্ষোভ শুরু হলো। স্থানীয় সময় আগামীকাল সোমবার ইসরায়েলে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। বিশ্লেষকেরা মনে করছেন, এই নির্বাচনে পরাজিত হতে পারেন নেতানিয়াহু। বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে টানা ১২ বছর ক্ষমতায় আছেন নেতানিয়াহু। দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে ইসরায়েলে এটি চতুর্থ দফা নির্বাচন।

বিজ্ঞাপন

এএফপি বলছে, নেতানিয়াহুর বিরোধীরা তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বলছেন, করোনাভাইরাস মহামারির সময় লকডাউনসহ তাঁর বিভিন্ন সিদ্ধান্তে অব্যবস্থাপনা ও অদক্ষতার কারণে দেশের অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং অনেক মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

নেতানিয়াহুর বাসভবনের বাইরে সংঘটিত ওই বিক্ষোভে নেতৃত্বে মূলত তরুণেরা। বিক্ষোভে অংশ নেওয়াদের ইসরায়েলি পতাকা হাতে নিয়ে স্লোগান দিতে দেখা গেছে। বিক্ষোভকারীরা সে সময় নেতানিয়াহুর ডাকনাম ধরে ‘বিবি বাড়ি যাও’ বলে চিৎকার করতে থাকেন।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়াদের হাতে নেতৃত্ব পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তাসহ পুলিশের প্রতি মানুষের অনাস্থার বেশ কিছু বার্তাসংবলিত প্ল্যাকার্ড দেখা যায়। তেল আবিবের ৬‍০ বছর বয়সী আইনজীবী আনাত গৌরেল্লে এএফপিকে বলেন, ‘আমরা একজন একনায়কের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে এসেছি। ইসরায়েলে যা হচ্ছে তা ভয়াবহ। কেউ একজন ক্ষমতার অপব্যবহার করে তাঁর নিজের মানুষের কাছ থেকে চুরি করছেন। এটি চিন্তাও করা যায় না। তাঁর বিদায়ের আগ পর্যন্ত আমরা প্রতিবাদ চালিয়ে যাব।’

নেতানিয়াহু ইসরায়েলের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, যিনি দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন। গত বছর তাঁর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনটি দুর্নীতির মামলা হয়। এর মধ্যে ঘুষ নেওয়া এবং ইতিবাচক কভারেজ পাওয়ার বিনিময়ে মিডিয়াকে বিশেষ বাণিজ্যিক সুবিধা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন