যুক্তরাজ্যের নির্বাচনে আবার জয়ী রূপা হক

বিজ্ঞাপন
default-image

যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে আবার জয় পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রূপা হক। তিনি লন্ডনের ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসনে তৃতীয় মেয়াদে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। লেবার দলীয় প্রার্থী রূপা হকের প্রাপ্ত ভোট ২৮ হাজার ১৩২। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ দলের প্রার্থী জুলিয়ান গেল্যান্ট পেয়েছেন ১৪ হাজার ৮৩২ ভোট।

২০১৫ সালে রূপা হক প্রথমবারের মতো এমপি নির্বাচিত হন। ওইবার তিনি মাত্র ২৭৪ ভোটের ব্যবধানে জয় পেয়ে চমক সৃষ্টি করেন। ২০১৭ সালে তিনি জিতেছিলেন ১৩ হাজার ৮০৭ ভোটের ব্যবধানে। এবার ১৩ হাজার ৩০০ ভোটের ব্যবধানে জয় পেয়েছেন বাংলাদেশি পরিবারের সন্তান রূপা।

কিংসটন ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞানের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক রূপা লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশে তাঁর আদি বাড়ি পাবনায়।

গতকাল বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচন হয়। স্থানীয় সময় রাত ১০টায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়। চলছে ভোট গণনার পালা। এর মধ্যে বিভিন্ন আসনের ফলাফল আসতে শুরু করেছে।

বুথফেরত জরিপের তথ্য বলছে, বিশাল জয়ে ক্ষমতায় ফিরছে বরিস জনসনের কনজারভেটিভ দল। তাদের আসন এবার ৫০টি বেড়ে ৩৮৬ হবে বলে আভাস দেওয়া হয়েছে। বিপরীতে লেবার দলের আসন ৭১টি কমে ১৯১টি হবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থীদের মধ্যে রূপা হকের ফলাফল সবার আগে চলে এসেছে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অপর দুই এমপি রুশনারা আলী, টিউলিপ সিদ্দিক আবার জয় পেতে যাচ্ছেন বলা হচ্ছে। তাঁদের সঙ্গে এবার বিজয়ী হিসেবে যুক্ত হতে পারেন আরেক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী আফসানা বেগম। বুথফেরত জরিপে লেবার পার্টির এই তিন বাঙালি কন্যা জয় পাবেন বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। ভোট গণনার সর্বশেষ খবরও একই ইঙ্গিত দিচ্ছে।

ইংল্যান্ডে লেবার দলের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত বেশ কয়েকটি আসনে লেবারের হারের খবর এসেছে। দলটির এসব দুর্গে হানা দিয়েছে কনজারভেটিভরা। দেশব্যাপী লেবার খারাপ ফল করলেও লন্ডনের আসনগুলোতে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই চার প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত বলা হচ্ছে। কেননা, আসনগুলোর ভোটাররা ব্রেক্সিটবিরোধী।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন