বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রথমত, করোনার নতুন ধরন অমিক্রন বহুবার তার জিনগত রূপ পরিবর্তন করেছে। এ কারণে এই ধরনটি মানুষের দেহকোষে খুব সহজেই ঢুকে পড়তে পারছে।

মারিয়া ভ্যান কারকোভে বলেন, ‘দ্বিতীয় কারণ হলো, আমরা যেটাকে বলছি রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে ফাঁকি দেওয়া। এর মানে, করোনাভাইরাসে আগে আক্রান্ত হওয়া ও করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়া মানুষজনও আবার ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হতে পারেন।’

মারিয়া ভ্যান কারকোভে আরও বলেন, শ্বাসতন্ত্রের ওপরের দিকে ডেলটা ও করোনার অন্যান্য ধরনের তুলনায় ভিন্নভাবে ছাড়াচ্ছে অমিক্রন। এসব কারণ ছাড়া মানুষের আরও বেশি মেলামেশা করা, শীতকাল হওয়ায় উত্তর গোলার্ধের দেশগুলোতে মানুষের বদ্ধ জায়গায় আরও বেশি সময় কাটানো ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো বিষয়গুলো মেনে না চলার কারণে ভাইরাসটির বিস্তার বাড়ছে।

গত সপ্তাহে বিশ্বে প্রায় ৯৫ লাখের করোনা শনাক্তের রেকর্ড হওয়ার কথা জানিয়েছে ডব্লিউএইচও। এর আগের সপ্তাহের তুলনায় শনাক্ত ৭১ শতাংশ বেড়েছে।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন