বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কানাডার ওয়াটারলু বিশ্ববিদ্যালয়ের পৃথিবী এবং পরিবেশবিজ্ঞানের অধ্যাপক ক্রিস ইয়াকিমচুক বলেন, ‘এই রুবির ভেতরের গ্রাফাইট সত্যিই অনন্য। এই প্রথম আমরা রুবিবহনকারী পাথরে প্রাচীন জীবনের প্রমাণ দেখেছি।’

মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৫০ কোটি বছর আগের পাথরে গ্রাফাইটের সন্ধান পাওয়া গেছে। পৃথিবীর ওই সময়ে বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের পরিমাণ ছিল কম এবং এককোষী জীবন কেবল অণুজীব ও শৈবালে বিদ্যমান ছিল।

এ কার্বনের জৈব উৎপত্তি নির্ধারণে গবেষকেরা এর রাসায়নিক বিশ্লেষণ করেন।
গবেষক ইয়াকিমচুক বলেন, ‘জীবন্ত বস্তুর মধ্যে হালকা কার্বন পরমাণু থাকে, কারণ তারা কোষে একত্র হতে কম শক্তি নেয়। এই গ্রাফাইটের কার্বন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এই কার্বনের পরমাণুগুলো একসময়কার আদিম জীবনের। বিশেষ করে তা সায়ানোব্যাকটেরিয়ার মতো মৃত অণুজীব হতে পারে।

রুবি গঠনের প্রয়োজনীয় শর্তগুলো আরও ভালোভাবে বোঝার জন্য ভূতত্ত্ব নিয়ে অধ্যয়ন করার সময় বিজ্ঞানীরা গ্রিনল্যান্ডে পাথরটি খুঁজে পেয়েছিলেন।

রুবি হলো খনিজ কোরান্ডামের একটি লাল রঙের ধরন। একই পদার্থ থেকে গঠিত হয় স্যাফায়ার। রুবিতে ক্রোমিয়াম স্বতন্ত্র রঙ তৈরি করে। অন্যদিকে স্যাফায়ারে লৌহ, টাইটেনিয়াম ও নিকেল ভিন্ন রং তৈরি করে।

গবেষকেরা আরও দেখেছেন, গ্রাফাইট সম্ভবত রুবি তৈরির অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি করতে পার্শ্ববর্তী শিলার রসায়ন পরিবর্তন করে।
গবেষক ইয়াকিমচুক আরও বলেন, গ্রিনল্যান্ডে কীভাবে রুবি তৈরি হয়েছে, গ্রাফাইটের উপস্থিতি তা নির্ধারণে আরও বেশি তথ্য দিয়েছে। এত দিন রুবির রং ও রাসায়নিক গঠন বিশ্লেষণ করেও এ তথ্য জানা কঠিন ছিল।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন