বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভারত মহাসাগরের ছোট্ট দ্বীপ স্যেচেলেসে জন্ম জোনাথনের। দক্ষিণ আটলান্টিকের সেন্ট হেলেনা দ্বীপে কচ্ছপটি বসবাস করছে সেই ১৮৮২ সাল থেকে। জোনাথনের জন্মের প্রায় ৫০ বছর পর এই দ্বীপে তার আগমন। এই দ্বীপ তখন ছিল ব্রিটিশদের উপনিবেশ। এখানের রাজ্যপালকে উপহারস্বরূপ দেওয়া হয়েছিল জোনাথনকে।

সেন্ট হেলেনা কর্তৃপক্ষ বলছে, এখন বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘ্রাণশক্তি ও দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছে কচ্ছপটি। ভারতের ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর খবরে বলা হয়, এখনো জোনাথনের শ্রবণশক্তি চমৎকার। সে সঙ্গ পছন্দ করে। ডেভিড, এমা ও ফ্রেড নামে তার তিন সঙ্গী রয়েছে। পশুচিকিৎসক জো হলিন্সের কণ্ঠ শুনে সাড়া দেয়। পশুচিকিৎসক তাকে নিয়মিত খাবার দেন। জোনাথনের প্রিয় খাবারের মধ্যে রয়েছে বাঁধাকপি, শসা, গাজর, আপেল এবং অন্যান্য মৌসুমি ফল।

এর আগে সবচেয়ে বেশি বয়সী কচ্ছপটির নাম ছিল তুই মালিলা। ১৯৬৫ সালে ১৮৮ বছর বয়সে এটি মারা যায়।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন